দেশ 

চলে গেলেন দেশের প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও ডিএমকে প্রধান করুনানিধি

শেয়ার করুন
  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি :চলে গেলেন তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা ডিএমকে প্রধান এম. করুনানিধি। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চেন্নাইয়ের কাভেরি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। দক্ষিণ ভারতের রাজনীতির আঙিনায় তিনি জনপ্রিয় নেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। তিনি চার পুত্র ও এক কন্যাকে রেখে গেলেন। দুই পুত্র ও কন্যা কানিমোঝি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছেন।

উল্লেখ্য ,গত ২৮ জুলাই থেকে হাসপাতালে ভর্তি আছেন করুণানিধি। তারপর থেকেই সমর্থকদের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে হাসপাতালের সামনে। নিরাপত্তার স্বার্থে হাসপাতাল চত্বরে মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী।  পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, শ্বাসনালীতে সমস্যা দেখা দেওয়ায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। ২৯ জুলাই হাসপাতালের পক্ষ থেকে মেডিক্যাল বুলেটিনে জানানো হয়, মূত্রনালিতে সংক্রমণ হয়েছিল। স্থিতিশীল রয়েছেন ডিএমকে নেতা। কিন্তু সোমবার রাতে জানানো হয়, তাঁর অবস্থার অবনতি হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে জানানো হয়, ‘অত্যন্ত সঙ্কটজনক’ তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। অবশেষে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাঁর মৃত্যুর কথা ঘোষণা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এর আগে মঙ্গলবার সকালেই তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই পালানিস্বামীর সঙ্গে করুণানিধির দুই ছেলে এম কে আলাগিরি, ও এম কে স্টালিনের এবং মেয়ে কানিমোঝির বৈঠক হয়। সূত্রের খবর, মেরিনা বিচে শেষকৃত্য নিয়ে ওই বৈঠক আলোচনা হয়। এই মেরিনা বিচেই অধিকাংশ তামিল রাজনীতিবিদের সমাধিস্থল রয়েছে। তামিল রাজনীতির আরেক আইকন জয়ললিতাকেও এখানেই সমাধিস্থ করা হয়। সেখানেই তামিলনাড়ুর পাঁচ বারের মুখ্যমন্ত্রীর শেষকৃত্য সেখানে হবে বলেই জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই শেষকৃত্যের প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গেছে।

এম.করুনানিধির শারীরিক অবস্থা সংকটজনক এই খবর পাওয়ার পরই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চেন্নাই গেছেন। দেশের সব প্রধান রাজনৈতিক দলের নেতারা চেন্নাই যাচ্ছেন করুনানিধির শেষকৃত্যে যোগ দিতে।

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 15
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment