কলকাতা 

রোজভ্যালী কর্তা জেলে,নিঃশব্দে হাত বদল সংস্থার ২৭০০ কোটি টাকা, তদন্তে ইডি,নতুন করে গ্রেপ্তারের সম্ভাবনা জামিনে থাকা কর্তাদের

শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : রোজভ্যালী মামলা আবার নতুন করে শুরু হতে চলেছে জানা গেছে। বিভিন্ন সংবাদ সংস্থার খবর অনুযায়ী জানা যাচ্ছে,, রোজভ্যালী কর্তা জেলে থাকাকালীন সময়েই নাকি হাত বদল হয়েছে ২৭০০ কোটি টাকা। এ বিষয়ে তথ্য প্রমাণ পাওয়ার পর শনিবার বিচারভবনে সিবিআই কোর্টে মামলা দায়ের করছে ইডি।ইডি সূত্রে খবর রোজভ্যালির অধিকাংশ সংস্থাই সিল করে দেওয়া হয়েছে। ২,০০০ কোটি টাকারও বেশির সমপত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। কিন্তু, এরপরও রোজভ্যালির তিন সংস্থা থেকে ২৭০০ কোটি টাকা এই এক বছরের মধ্যে হাত বদল হয়েছে বলে অভিযোগ। রোজভ্যালির নির্মাণসংস্থা, হোটেল সংস্থা ও ফিল্ম সংস্থা থেকে এই অর্থ সরানো হয়েছে বলেও অভিযোগ। এই মামলায় রোজভ্যালির তিন সংস্থার বেশকিছু কর্মী ও কর্তার জড়িত থাকারও প্রমাণ ইডি-র হাতে এসেছে।

এদিন আদালতে এই কর্মী ও কর্তাদের তালিকা জমা করে সমন পাঠানোর আর্জি জানিয়েছে ইডি।রোজভ্যালির এই তিন সংস্থার কর্মী ও কর্তা যারা আর্থিক তচ্ছরূপে জড়িত তারা আত্মসমর্পণ করলে ভালো নয়তো এদের গ্রেফতার করা হতে পারে বলেও ইডি সূত্রে খবর।রোজভ্যালিকাণ্ডে চার বছর ধরে জেলে রয়েছেন চেয়ারম্যান গৌতম কুন্ডূ। রোজভ্যালী কর্তা ছাড়া এই মামলায় কয়েক জন প্রভাবশালী ও এই সংস্থার একাধিক কর্তা গ্রেপ্তার হয়েছিলেন। তবে এখন তারা অনেকেই জামিনে মুক্ত। উল্লেখ্য,রোজভ্য়ালিকাণ্ডে বেসরকারি মতে এই তচ্ছরূপের অঙ্ক ২৫,০০০ কোটি টাকা। যদিও, সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত ৮,০০০ কোটি টাকার কেলেঙ্কারির কথা জানা গিয়েছে। কিন্তু, স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি মিলিয়ে ইডি এখন পর্যন্ত মাত্র ৫,০০০ কোটি টাকার হদিশ পেয়েছে।

অন্যদিকে আদালত রোজভ্যালির আমানতকারীদের অর্থ ফেরতের নির্দেশ দিলেও সেই কাজটি এখনও শুরু হয়নি বলে জানা গেছে। গত সপ্তাহে কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করে রোজভ্য়ালির আমানতকারী ও রোজভ্য়ালি ফিল্ড-কর্মী অ্যান্ড এমপ্লয়িজদের যৌথ ফোরাম সেই আবেদনে অবিলম্বে অর্থ ফেরতের প্রক্রিয়া শুরু করার  পাশাপাশি একাধিক দাবি-দাওয়াও পেশ করা হয়।

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment