কলকাতা 

অসম থেকে ফিরে অভিযোগ ফিরহাদ-সুখেন্দুর বিজেপি-র আমলে দেশে গনতান্ত্রিক অধিকার খর্ব হচ্ছে,দেশে সুপার ইমার্জেন্সি চলছে দাবি মমতার , অসম পুলিশ সঠিক কাজ করেছে বললেন দিলীপ

শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : অসমের শিলচর বিমানবন্দরে রাতভোর আটকে থাকার পর তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ – বিধায়কদের প্রতিনিধি দলটির ৬ জন আজ সকালে কলকাতায় ফিরে এসেছেন। দমদম বিমানবন্দরে নেমেই সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়, কাকলী ঘোষ দস্তিদার, রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, বিধায়ক মহুয়া মৈত্র সকলেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন। অসমের পুলিশ প্রশাসন এবং বিজেপি-র ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করেন, তাঁদের অভিযোগ, বিজেপির আমলে দেশে, গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হচ্ছে। শিলচর থেকে দুই তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সরাসরি দিল্লী চলে যান।

আগেই জানানো হয়েছে, অসমে, এনআরসি পরবর্তী পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে তৃণমূল কংগ্রেস ছয় সাসংদ এবং এক বিধায়ক শিলচর বিমানবন্দরে পৌঁছলে, পুলিশ প্রশাসনের কর্তারা তাঁদের আটকে দেয়। ১৪৪ ধারা জারী থাকার কারণ দেখিয়ে তাঁরা প্রতিনিধিদলটিকে বিমানবন্দরে বাইরে যেতে বাধা দেয়। কলকাতা থেকে রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম সেখানে পৌঁছলে তাঁকেও বাধা দেওয়া হয়। সাংসদ বিধায়কদের সঙ্গে পুলিশকর্মীদের ধ্বস্তাধ্বস্তি হয়। মহিলাদের শারীরিক নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ।

তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলের জনপ্রতিনিধিদের হেনস্থার তীব্র নিন্দা করে বলেছেন, দেশে সুপার ইমার্জেন্সি চলছে। 

 

অন্যদিকে, বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, অসম পুলিশ প্রশাসন ঠিক কাজই করেছে।


শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment