জেলা 

হাজী মুহাম্মদ মহসিনের স্বপ্ন আমরা সাকার করব, আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে চালু হচ্ছে হগলী মাদ্রাসা ঘোষণা সিদ্দিকুল্লাহ- অরূপের, শুধুই ঘোষণা মাত্র কটাক্ষ আবদুস সাত্তারের, না আচাঁলে বিশ্বাস নেই দাবি আন্দোলনকারীদের

শেয়ার করুন
  • 183
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বুলবুল চৌধুরি : হাজী মুহাম্মদ মহসিনের দান করা জায়গায় প্রতিষ্ঠিত হুগলী মাদ্রাসায় আগামী বছর থেকে পঠন-পাঠন শুরু হবে বলে আজ ঘোষণা করা হয়েছে। হুগলী মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে আজ জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এক সভার আয়োজন করা হয় । এই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস বলেন,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উন্নয়নের কান্ডারি। আগে বামেরা মাত্র কয়েক লক্ষ ছেলেমেয়েকে স্কলারশিপ দিত। আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে তা কয়েক গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি আরও বলেন হুগলী মাদ্রাসার সমস্যা বামফ্রন্ট আমলে হয়েছিল, তারা এই মাদ্রাসাকে বন্ধ করার সব রকম প্রচেষ্টা করেছে। আমরা আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে এই মাদ্রাসা চালু করব। আগামী ৫ বছরের মধ্যে এই মাদ্রাসাকে স্বমহিমায় গড়ে তোলা হবে বলে অরূপ বিশ্বাস দাবি করেন।

এদিনের সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি বলেন, হাজী মুহাম্মদ মহসিনের স্বপ্ন আমরা সাকার করব। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট বলেছেন, সংখ্যালঘু উন্নয়নে আমরা দায়বদ্ধ । তিনি বলেন,হুগলী মাদ্রাসাকে স্বমহিমায় ফিরিয়ে আনার জন্য স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী উদ্যোগী হয়েছেন। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে হুগলী মাদ্রাসার আমূল পরিবর্তন হবে। এখানে ইংরেজি মাধ্যাম মাদ্রাসার পাশাপাশি উচ্চ-মাধ্যমিক পর্যন্ত মাদ্রাসা খুব শীঘ্রই চালু করা হবে। এদিনে সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী তপন দাশগুপ্ত, সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও মাদ্রাসা শিক্ষা দপ্তরের সচিব পিবি সেলিম প্রমুখ।

আজ সরকারিভাবে এই ঘোষণা পর হুগলী মাদ্রাসা নিয়ে যারা আন্দোলন করছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন অল বেঙ্গল মাইনোরিটি অ্যাসোসিয়েশনের আবু আফজল জিন্নাহ এই প্রসঙ্গে বলেন,মন্ত্রীদের মুখের কথায় কিছু হবে না। সরকারি নির্দেশিকা জারি না হওয়া পর্য্ন্ত কিছুই বিশ্বাস নেই । ২০১৫ সালে রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় হুগলী মাদ্রাসা পরিদর্শনে এসে কথা দিয়েছিলেন খুব শীঘ্রই মাদ্রাসা চালু হবে। তা এখনও হয়নি। এবার দুজন মন্ত্রী কথা দিলেন,তা কী বাস্তবায়িত হবে এনিয়ে প্রশ্ন তুললেন আবু আফজল জিন্নাহ। সুতরাং না আচাঁলে বিশ্বাস নেই।

অন্যদিকে বাংলার জনরব নিউজ পোর্টালে সর্ব প্র্রথম হুগলী মাদ্রসা নিয়ে মুখ খুলে ছিলেন প্রাক্তন সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী আবদুস সাত্তার । বাংলার জনরব-এর এই সাক্ষাৎকার সমগ্র দেশজুড়ে ভাইরাল হয়েছিল। তাই আজকে দুই মন্ত্রীর ঘোষণা নিয়ে আমরা সরাসরি আবদুস সাত্তার সাহেবকে প্রশ্ন করেছিলাম। তিনি বললেন, ঘোষণা হয়েছে মাত্র । এর বেশি কিছু হয়নি।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 183
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment