প্রচ্ছদ 

শুভেন্দু থেকে মুকুল রায় সবাইকে মোটা অংকের টাকা দিয়েছেন সারদা কর্তা , বিস্ফোরক অভিযোগ করে প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি সুদীপ্ত সেনের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিধানসভা নির্বাচনের আগে আবার নতুন করে সারদা কান্ড সামনে এলো । এবার সারদা কর্তা জেল থেকে বিস্ফোরক চিঠি লিখেছেন,  সেই চিঠিতে বিরোধী দলের একাধিক নেতাকে টাকা দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন । ওই চিঠি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেওয়া হয়েছে ।

প্রেসিডেন্সি জেল থেকে মুখ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর দফতরে চিঠি লিখে রাজ্যের একাধিক রাজনৈতিক দলের নেতার বিরুদ্ধে টাকা নেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন সারদা কর্তা। কে নেই সেই তালিকায়, রাজ্য রাজনীতিতে যিনি এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি চর্চায় সেই শুভেন্দু অধিকারী থেকে শুরু করে মুকুল রায়, বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু, বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরির নামও রয়েছে চিঠিতে।

 

কারা দফতর সূত্রে খবর, গত ১ ডিসেম্বর সুদীপ্ত সেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লেখেন।  তিনি লিখেছেন তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে ৬ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। ৯ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে বিধানসভায় বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তীকে। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুকে ২ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। সুদীপ্ত সেনের অভিযোগের তালিকায় রয়েছেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরিও। তিনি নাকি ৬ কোটি টাকা নিয়েছেন বলে চিঠিতে উল্লেখ করেছেন সুদীপ্ত।

তবে একদা তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড তথা বর্তমানে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়কে কত টাকা দিয়েছেন তা মনে করতে না পারলেও, মোটা অঙ্কের টাকাই তাঁকে দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন সুদীপ্ত সেন। এই চিঠিতে স্বাক্ষরও রয়েছে সুদীপ্ত সেনের। এই চিঠি কারা দফতরের মাধ্যমে পৌঁছেছে এডিজির কাছে। তারপর সেখান থেকে মুখ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর দফতরে তা পাঠানো হয়েছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment