জেলা 

উলুবেড়িয়ার বিজয় স্মৃতি চতুষ্পাঠীর উদ্যোগে পুরোহিত সম্মান- ২০২০, বিজয়া সম্মেলনীর অনুষ্ঠানে ধর্মে ধর্মে সমন্বয় ও ভ্রাতৃত্ববোধের আহ্বান জানালেন বিধায়ক ইদ্রিশ আলি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আজ ৮ই নভেম্বর রবিবার, গঙ্গারামপুর হাইস্কুল প্রাঙ্গণে বিজয় স্মৃতি চতুষ্পাঠীর উদ্যোগে পুরোহিত সম্মাননা প্রদান এবং বিজয়া সম্মেলনী অনুষ্টিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, বিধায়ক শ্রী পুলক রায়।প্রধান অতিথি ছিলেন উলুবেড়িয়া পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক ইদ্রিশ আলি ।অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উলুবেড়িয়া থানার আই সি শ্রী কৌশিক কুন্ডু, হাওড়া পন্ডিত সমাজের অধ্যাপক শ্রী রামচন্দ্র কাব্যতীর্থ, অধ্যাপক শ্রী ভবেশ চন্দ্র মুখোপাধ্যায়। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন উলুবেড়িয়া পৌরসভার অন্যতম প্রশাসক আকবর শেখ, শিক্ষক মুক্তেশ দে, শ্রী অরিজিৎ বন্দোপাধ্যায়, ডাক্তার শ্রী প্রশান্ত ঝুরিয়াৎ।


বিধায়ক শ্রী পুলক রায়, বিজয়া সম্মেলনীর তাৎপর্য ব্যাখা করেন ।তাছাড়া পুরোহিত দের সম্মান দেওয়ার জন্য আয়োজক সংগঠকদের ধন্যবাদ জানান ।
প্রধান অতিথির ভাষণে বিধায়ক ইদ্রিশ আলি বলেন, বিজয়া সম্মেলনীতে, সকল ধর্মের সমন্বয় ঘটায় ।শুভ দূর্গাপুজার পর বিজয়া সম্মেলনী মহান হিন্দু ধর্মের উদারতা , মানবতার দিক গুলির প্রকাশ পাই।বিধায়ক ইদ্রিশ আলি বলেন, ঠাকুর শ্রী শ্রী রামকৃষ্ণ পরমহংসদেব সবধর্মের মিলনের কথা বলে গেছেন ।তিনি আরও বলেন, পুরোহিতরা শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি, তাঁদের সম্মান জানানো আমাদের কর্তব্য ।বিধায়ক ইদ্রিশ আলি আরও বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি পুরোহিত ভাতা চালু করে রাজ্যের প্রধান হিসেবে এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত করেছেন ।তিনি আরও বলেন, আসুন আমরা ভারতবাসী আমাদের কামনা হোক ধর্মে ধর্মে সমন্বয়, ভ্রাতৃত্ববোধ আরও বেশি জাগরিত হোক ।


অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, শ্রীমতি অরুন্ধতী বন্দোপাধ্যায়, ডাক্তার শ্রী শৈবাল আচার্য, শ্রী রানা প্রতাপ চট্টোপাধ্যায়, শ্রী ঋতব্রত উপাধ্যায়, শ্রী দেবাশিস হালদার, শ্রী অশোক গোস্বামী প্রমুখ ।
উল্লেখ্য মোট তিনজন পুরোহিত, অজিত ঘোষাল ঈশ্বর কৃষ্ণ কলি চক্রবর্তী, ঈশ্বর অলোক চক্রবর্তীকে মরণোত্তর পুরোহিত সম্মান জ্ঞাপন করা হয়।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment