জেলা 

বাংলার রাজনীতি নজীরবিহীন ঘটনার সাক্ষী রইল, আহত বিজেপি কর্মীদের দেখতে মেদিনীপুরে মানবিক মুখ্যমন্ত্রী

শেয়ার করুন
  • 55
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি :  বাংলার রাজনীতিতে এক নজীরবিহীন ঘটনা ঘটালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । তিনি আজ নিজে নরেন্দ্র মোদীর সভায় প্যান্ডেল ভেঙে যারা আহত হয়ে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি আছেন তাদের দেখতে যান। আর বিরোধী দলের কর্মী সমর্থকদের প্রতি রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর এই সৌজন্যতা নজীরবিহীন বলা যেতে পারে । রাজনীতিতে বিরোধী দলের কর্মীদের এভাবে মুখ্যমন্ত্রীর দেখতে যাওয়াকে বাংলা তো বটেই দেশের রাজনীতিতে বিরলতম ঘটনা বলে ওয়াকিবহাল মহল মনে করছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই উদারতা দেশের রাজনীতিতে এক নজীর তৈরি করল।

তিনি আহতদের চিকিৎসার বিষয়ে হাসপাতালের সুপারেও সঙ্গে  কথা বলেন। পরে মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, “তিনজন গুরুতর আহত পরিবারকে সাহায্য করা হচ্ছে। তিনটি পরিবারকে ১ লাখ টাকা করে আমরা দেব। এই পরিবারগুলি নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবার। তাই মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিল থেকে আগামীকাল ১ লাখ টাকা করে সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অন্য আহতরাও সাহায্যের আবেদন করলে ভাবনাচিন্তা করা হবে।”

উল্লেখ্য গত ১৬ জুলাই মেদিনীপুর কলেজ মাঠে কৃষক-কল্যাণ সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বক্তব্য চলাকালীন সময়ে একদিকের প্যান্ডেল ভেঙে পড়ে। এর ফলে কমপক্ষে ৯১ জন আহত হন। তাদেরকে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয় । অনেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ,আবার কিছু আহত ব্যক্তি এখনও হাসপাতালে ভর্তি আছে । আজ তাদের দেখতে মুখ্যমন্ত্রী মেদিনীপুর যান। অবশ্য দুর্ঘটনার পরই মুখ্যমন্ত্রী ট্যুইট করে জানিয়েছিলেন , আহতদের চিকিৎসার জন্য রাজ্য সরকার সব রকম প্রচেষ্টা চালাবে।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 55
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment