দেশ 

বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করে বিতর্কে রাজ্য নির্বাচন কমিশনার একে সিংহ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ রাজ্য নির্বাচন কমিশনের বিজ্ঞপ্তি জারি করে মনোনয়নপত্র  জমা দেওয়ার দিন ও সময় বাড়ানোর মাত্র ১২ ঘন্টার মধ্যেই অজুহাত খাঁড়া করে বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহার করাকে তীব্র ভাষায় সমালোচনা করছেন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি থেকে শুরু করে খ্যাতনামা আইনজীবীরা।
সুপ্রিমকোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি অশোক কুমার গাঙ্গুলি বলেন, এটা সম্পূর্ণরূপে আইনবিরুদ্ধ। একটা সাংবিধানিক সংস্থা একাজ করতে পারেনা। বর্ষীয়ান আইনজীবী ও প্রাক্তন সাংসদ সর্দার আমজাদ আলি বলেন, নির্বাচন কমিশনারের কোনও মেরুদন্ড নেই। মেরুদন্ডহীন এই কমিশনার আসলে মমতা সরকারের  ‘তাঁবেদারি’ করতে ব্যস্ত।
বিশিষ্ট আইনজীবী জয়ন্ত নারায়ণ চট্টোপাধ্যায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সুপ্রিমকোর্ট রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের কাজে হস্তক্ষেপ করতে চাইছে না মানে এই নয় যে, নির্বাচন কমিশন যা ইচ্ছে তাই করতে পারবে। বরং ঘুরিয়ে সুপ্রিমকোর্ট নির্বাচন কমিশনকে তার নিজের ক্ষমতা প্রয়োগ করতে নির্দেশ দিয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, প্রত্যেক প্রার্থীর মনোনয়ন জমা দেওয়ার অধিকার রয়েছে। আর সেই অধিকারকে নির্বাচন কমিশন মর্যাদা দেবে। তা না করে রাজ্য নির্বাচন কমিশন ঠিক করেনি। তিনি আরও বলেন, একদিন মনোনয়নের সময় বাড়িয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশন কোনও আইন বিরুদ্ধ কাজ করেনি। বরং এটাকে যথাযথভাবে বাস্তবায়িত করতে পারলে নির্বাচন কমিশনারের ভাবমূর্তি উজ্জল হত।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment