কলকাতা 

যাদবপুরে ফিরল ঐতিহ্যের প্রবেশিকা, কিন্ত বিশ্ববিদ্যালয়কে আলবিদা জানাতে চান সুরঞ্জন

শেয়ার করুন
  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : যাদবপুরের ছাত্র আন্দোলনের ফলেই ফিরে এল দীর্ঘদিন ধরে চলা ভর্তি পরীক্ষা। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্ম-সমিতির বৈঠকে পড়ুয়াদের দাবিকেই মানত্য দেওয়া হয়েছে । এদিনের বৈঠকে ১১টি বিষয়ে বিভাগীয় প্রধানসহ ডিন প্রবেশিকা ফিরিয়ে আনার পক্ষেই মত প্রকাশ করেন বলে জানা গেছে। কিন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও সহ-উপাচার্য প্রবেশিকা পরীক্ষা পুনরায় ফিরিয়ে আনার পক্ষে ছিলেন না। কর্ম-সমিতির সিদ্ধান্ত সাংবাদিকদের কাছে ঘোষণা হওয়ার পরই উপাচার্য ছাত্রদের জানিয়েছেন তিনি আর যাদবপুরে থাকতে চান না। তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন ,কর্ম-সমিতির সিদ্ধান্তের সঙ্গে তিনি এবং সহ-উপাচার্য একমত নন । তাঁরা এমনকি রেজুলেশনে পার্টিও হননি। আচার্য ফিরলেই তিনি পদ থেকে অব্যাহতি চাইবেন। তিনি একপ্রকার মঙ্গলবার জানিয়ে দিয়েছেন,যাদবপুরের ঐতিহ্য মেনে প্রবেশিকা ফিরলেও তিনি আর বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরছেন না। রাজ্যপাল ফিরলে তিনি পদত্যাগ করবেন বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, সুরঞ্জন দাস একজন বিশিষ্ট ইতিহাসবিদ একইসঙ্গে যোগ্য শিক্ষা প্রশাসক হিসেবে নিজেকে প্রমান করেছেন। বিগত দুই দশক ধরে তাঁর মত প্রশাসক আর দেখা যায়নি। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক ছিলেন পরবর্তীকালে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনি উপাচার্য হয়েছিলেন । টানা বেশ কয়েক বছর ধরে তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্ব সামলেছেন। যাদবপুর যখন উত্তাল ছিল ঠিক সেই সময় তাঁকে হাল ধরতে দেওয়া হয়েছিল। তিনি যোগ্যতার সঙ্গে যাদবপুরকে পরিচালনা করেছেন। তাঁর মত একজন সুযোগ্য প্রশাসক সত্যিই যদি যাদবপুরকে আলবিদা জানান তাহলে তা নিঃসন্দেহে দূভার্গ্যজনক।


শেয়ার করুন
  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment