জেলা 

আদিবাসী মহিলাকে গণধর্ষণের অভিযোগে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তাল হাড়োয়া

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : উত্তর ২৪ পরগণার হাড়েয়া থানার ছয়ানি বাজার সংলগ্ন এলাকা থেকে এক আদিবাসী মহিলার অর্ধনগ্ন দেহ উদ্ধার হয়েছে । ওই মহিলার হাত-পা বাধা ছিল । তাকে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ ।আদিবাসী মহিলার গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারির  দাবিতে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভও দেখান স্থানীয়রা।

অভিযোগ,কয়েকদিন ধরে এই ছয়ানি বাজারে বিজেপি-তৃণমূলের মধ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষ  চলছিল । সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার গভীর রাতে বাজারে বোমাবাজি করে একদল দুষ্কৃতী। বোমাবাজির পর এলাকার বেশ কিছু মানুষ ভয় পেয়ে অন্যত্র পালিয়ে যান। নিখোঁজ হয়ে যান ওই নির্যাতিতা স্বামীও। ওই মহিলা তাঁর স্বামীকে খুঁজতে বাইরে বেরিয়েছিলেন। অভিযোগ, সেই সময় তাকে কয়েকজন  মেছো ভেড়িতে তুলে নিয়ে যায়। আলা ঘরের মধ্যে হাত ও মুখ বেঁধে তারা গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে বলেও অভিযোগ। ওই আলা ঘরের পাশে বাঁধের উপর নির্যাতিতাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা।

সকালবেলায় স্থানীয়রা হাত-মুখ বাঁধা, অর্ধনগ্ন অবস্থায় ওই নির্যাতিতাকে দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা খবর দেন হাড়োয়া থানায়। হাড়োয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাড়োয়া হাসপাতালে ভরতি করে। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, তাঁর শারীরিক অবস্থা বর্তমানে সংকটজনক। এরপর ঘটনার তদন্ত করতে এলাকায় যায় বিশাল পুলিশবাহিনী। স্থানীয় মহিলারা পুলিশকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখান।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment