কলকাতা 

একুশের ভোটে বাংলায় বাংলার মানুষ শাসন করবে নিশ্চিত করুন। গুজরাট বাংলা শাসন করবে না’ : মমতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আজ ২১ জুলাইয়ের শহীদ দিবস পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস । এই প্রথম শহীদ দিবস পালিত হল ভার্চুয়াল সভার মাধ্যমে । সকালে রাজ্যের প্রতিটি বুথে তৃণমূল কংগ্রেস এদিনটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করে । ধর্মতলাতে একটি সভার আয়োজন করা হয় । এছাড়া আজ কালিঘাট মিলন সংঘের ময়দান থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন  বিজেপি দল এবং কেন্দ্র সরকারকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ । তিনি প্রথম শানিত বাক্যবাণে বিজেপিকে আক্রমণ করতে থাকেন । ২০২১ নির্বাচনে যে খুব সহজে বিজেপিকে জমি তৃণমূল ছেড়ে দেবে না তা কার্যত আজ বুঝিয়ে দিলেন মমতা ।

তিনি এদিন ভারচুয়াল সমাবেশ থেকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘বাংলাকে অপমানের বদলা নেব। বদলা নেব মানবিকতা দিয়ে। জেনে রাখো, বহিরাগতরা বাংলাকে শাসন করবে না। বাংলাকে শাসন করবে বাংলার মানুষ। বহিরাগতরা করবে না।’ এদিন নাম না করে বিজেপিকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘কেন্দ্রে ক্ষমতায় আছে বলে গায়ের জোর দেখাচ্ছে। উন্নয়নের কথা কখনও বলে না। সারাক্ষণ শুধু সর্বনাশের কথা বলে। রাজ্যে গুন্ডামি, দাঙ্গা, আগুন জ্বালানোর কথা বলে। মানুষকে শান্তিতে থাকতে দেয় না।’ তিনি এদিন এনআরসি-এনপিআর-সিএএ’র প্রসঙ্গ তুলে বলেন, ‘আমরা কোভিডের মধ্যে এসবের কথা ভুলিনি। দিল্লিতে দাঙ্গা করে নর্দমায় দেহ ফেলে দিয়েছে। সব জানি। কাউকে এরা প্রতিবাদ করতে দেয় না। প্রতিবাদ করলেই মুখ বন্ধ করে দেয়।’ তারপর বর্তমান পরিস্থিতি নিয়েও বিজেপিকে তুলোধোনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, ‘সারাক্ষণ কমপ্লেন করছে। দিল্লি থেকে উসকানি দেওয়া হচ্ছে খালি। বলছে, রাজ্যে নাকি আইনশৃঙ্খলা নেই। সারাদিন ধরে দাঙ্গা, গুন্ডামি, আগুন লাগানোর কথা বলে। আর বলে কিনা রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা নেই। উপাচার্যদের শান্তিতে থাকতে দিচ্ছে না। ১৮টা সিট জিতে মনে করছে গোটা বিশ্ব জয় করে ফেলেছে। মানুষের জন্য কী করেছে?’

মমতা বলেন, ‘কেন্দ্রে ক্ষমতায় আছে বলে গায়ের জোর? কখনও বলছে এনকাউন্টার করো, কখনও বলছে হিংসা করো, আপনাদের রাজনৈতিক জন্ম কোথায়? অনেকের তো নামই শুনিনি। কবে রাজনীতিতে এল ভাই! আমফান হল, বিজেপির কী নাচানাচি বাপরে!’ আমফান দুর্যোগের পর রাজ্যে ক্ষয়ক্ষতি পরিদর্শনে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেই প্রসঙ্গে মমতা এদিন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী এলেন এক ঘণ্টার জন্য দয়া করে। এক হাজার কোটি টাকা দিলেন, আমরা সঙ্গে সঙ্গে সে টাকা খরচ করে দিয়েছি।’ বিজেপি একটা তুচ্ছ রাজনৈতিক দল বলে কটাক্ষ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আজ একুশের সমাবেশ থেকে শপথ নিন, একুশের ভোটে বিজেপির জামানত বাজেয়াপ্ত করে বাংলায় বাংলার মানুষ শাসন করবে নিশ্চিত করুন। গুজরাট বাংলা শাসন করবে না।’


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment