দেশ 

নবম শ্রেনীর ছাত্রীর প্রতি গণধর্ষণের অভিযোগ সহপাঠী, শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে

শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : আমাদের দেশের মেয়েদের সম্মান আর বিদ্যালয়েও সুরক্ষিত নয়। বিহারের সরন জেলার পরসাগর গ্রামের এক নবম শ্রেনীর ছাত্রী পুলিশের কাছে যে অভিযোগ  করেছে তা শুনে ভাবতে হচ্ছে আমরা কী সভ্য হতে পেরেছি! প্রথমে সহপাঠীরা সুযোগ মত ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে । ধর্ষণ করার সময় ভিডিও করে রাখে। কাউকে একথা বললে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যাবে বলে ভয় দেখায়। তারপরও কিছু ছাত্রের কাছে ওই ভিডিও পৌছে যায় ,খরবটা কানাকানি হতে হতে বিদ্যালয়ে দুই শিক্ষক বিষয়টি জানতে পারে । তারাও একদিন কন্যাসম ছাত্রীকে ডেকে ধর্ষণ করে । ওই শিক্ষকরাও আবার ভিডিও করে রাখে । পরে ছাত্রীটি যখন সহ্যের সীমা অতিক্রম করে ফেলে তখন সে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে বিষয়টি বলে । প্রধান শিক্ষক মেয়েটিকে বলে এসব কথা বাইরে বললে স্কুলের সুনাম নষ্ট হবে ,বিষয়টি চেপে যেতে বলেন । কিন্ত প্রধান শিক্ষকও একদিন ওই ছাত্রীটিকে ডেকে নিজের চেম্বারের মধ্যে ধর্ষণ করে।

২০১৭ সালে ডিসেম্বর মাস থেকে ওই ছাত্রটির উপর ক্রমাগত পাশবিক অত্যাচার চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ । শেষ পর্যন্ত ছাত্রীটি সাহস করে শুক্রবার(৬ জুলাই) পুলিশে অভিযোগ করে। এরপরেই ওই বেসরকারি বিদ্যালয়ের কীর্তি ফাঁস হয়ে যায়। ছাত্রীটি মোট ১৮ জনের বিরুদ্ধে তার প্রতি শারীরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এনেছে। অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ তদন্তে নেমে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উদয় কুমার ওরফে মুকুন্দ সিং , শিক্ষক বালাজী এবং দুই নাবালক সহপাঠীকে গ্রেফতার করেছে । বাকীরা সবাই পলাতক। তাদেরকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ তল্লাশী শুরু করেছে।


শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment