দেশ 

উপরাজ্যপালকে দিল্লির নির্বাচিত সরকারের পরামর্শ মেনে কাজ করতে হবে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের ;রায়কে স্বাগত জানিয়েছে কংগ্রেস ও আপ

শেয়ার করুন
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : দিল্লির উপ-রাজ্যপাল প্রশাসনিক প্রধান ঠিকই তবে তাঁকে সংবিধানের ২৩৯ ধারা অনুসারে নির্বাচিত সরকারের পরামর্শ মেনে কাজ করতে হবে আজ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের ডিভিসন বেঞ্চ এই রায় প্রদান করেছেন। সম্প্রতি দিল্লির কেজরিওয়াল সরকারের সঙ্গে উপ রাজ্যপালের সংঘাত দিন দিন তীব্র হয়েছে। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে উপরাজ্যপালের অফিসে ধর্নায় বসতে হয়েছে। ইতিমধ্যে দিল্লি হাইকোর্ট এক রায়ে উপ-রাজ্যপালকেই দিল্লির  প্রশাসনিক প্রধান বলে উল্রেখ্য করেছিল । সেই রায়ের বিরুদ্ধে দিল্লির শাসক দল আপ সুপ্রিম কোর্টে আপিল করে। সেই মামলার রায় দিতে গিয়ে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ডিভিসন বেঞ্চ জানিয়ে দেন, উপ-রাজ্যপাল প্রশাসনিক প্রধান হলেও তাকে নির্বাচিত সরকারের পরামর্শ মেনে চলতে হবে। উপ-রাজ্যপাল দিল্লি সরকারের কোন কাজে বাধা সৃষ্টি করতে পারবে না। কোন বিষয়ে সহমত না হতে পারলে উপ-রাজ্যপাল সরাসরি সেই ফাইল রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠাতে পারেন । কোনভাবেই সরকারে নীতি নির্ধারনে উপ-রাজ্যপাল বাধা সৃষ্টি করতে পারবে না বলে আজ সুপ্রিম কোর্টের ডিভিসন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে।

এদিন মামলার রায় দিতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্ট বলে সমস্ত সাংবিধানিক সংস্থাগুলিকে সংবিধানে বর্ণিত অধিকার মত কাজ করতে হবে। সেদিক থেকে নির্বাচিত সরকারই মূল চালিকা শক্তি সংবিধান মতে। উপ-রাজ্যপাল নির্বাচিত সরকারের পরামর্শ মেনে কাজ করবে এটা সংবিধানে ২৩৯ ধারায় স্পষ্ট বলা আছে। তবে সরকারের উচিত সমস্ত বিষয়ে উপ-রাজ্যপালকে অবগত করা। এদিন সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিয়েছে, দিল্লি সরকার পুলিশ-প্রশাসন-ভুমি তিনটি বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত নিলে্ উপ-রাজ্যপালের অনুমতি নিতে হবে । এছাড়া আর কোন বিষয়ে উপ-রাজ্যপালের অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন নেই।

আজকের এই রায়ে দিল্লির শাসক আপ দল উল্লসিত। অন্যদিকে কংগ্রেস সুপ্রিম কোর্টের এই রায় স্বাগত জানিয়েছে। দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শীলা দীক্ষিত বলেছেন , সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ে আসলে গনতন্ত্রের জয় সুনিশ্চিত হয়েছে।


শেয়ার করুন
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment