জেলা 

নয়া রেলপথের কাজের সূচনা হবে শীঘ্রই, খুশি স্বরুপনগর-মছলন্দপুরের সাধারণ মানুষ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি, বসিরহাটঃ
অবশেষে স্বরুপনগর-মছলন্দপুরের মধ্যে নয়া রেলপথের কাজের সূচনা হতে চলেছে খুব শীঘ্রই। আর তাতেই খুশি স্বরুপনগর সহ পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের সাধারণ মানুষ। এলাকার মানুষের সমস্যার কথা মাথায় রেখে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় রেল মন্ত্রী থাকাকালীন ২০১০ সালের রেল বাজেটে বারাসাত-বনগাঁ রুটে মছলন্দপুর স্টেশন থেকে স্বরুপনগর পর্যন্ত নতুন রেল লাইন পাতার প্রস্তাব পাশ করেছিলেন । সেই মত অর্থও মনজুর করেছিলেন তৎকালীন রেলমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী ছাড়ার পর এই প্রস্তাব বিশ বাও জলে চলে যায়। কিন্তু এতদিন ধরে এখানে রেল চলাচল নিয়ে এলাকার মানুষ রেল দপ্তরের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে আসছিলেন। অবশেষে এই প্রস্তাব খারিজ করার বিষয় থেকে পিছু হটলো রেল দপ্তর। খুব শীঘ্রই মছলন্দপুর থেকে স্বরুপনগর পর্যন্ত দীর্ঘ ১৪ কিলোমিটার নতুন রেল লাইন পাতার কাজ শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে। এই ১৪ কিলোমিটার নতুন রেলপথের জন্য মোট চারটি স্টেশন হবে বলে জানা গিয়েছে ।
স্বরুপনগরের বাসিন্দা সঞ্জীব কর্মকার, আব্দুল আজিজ মোল্লা, উজ্জ্বল বিশ্বাসরা বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় রেল মন্ত্রী থাকাকালীন মছলন্দপুর স্টেশন থেকে স্বরুপনগর পর্যন্ত নতুন রেল লাইন সম্প্রসারণের জন্য তিনি বাজেট পেশ করেছিলেন। রেল দপ্তর থেকে সেই দিকে তাকিয়ে ওই রেললাইন সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিয়েছে। এটা হলে স্বরুপনগরের মানুষের ভীষণ উপকার হবে। উপকৃত হবেন আশেপাশের অঞ্চলের কয়েক লক্ষ মানুষ। যাতায়াতের ক্ষেত্রে ভীষণ উপকার হবে।”
মছলন্দপুর-স্বরুপনগরের নতুন রেলপথের রেল দপ্তর ও রাজ্য সরকারের প্রতিনিধি দলের সদস্য নারান চন্দ্র কর বলেন, “খুব তাড়াতাড়ি এই নতুন রেল পথের কাজ শুরু হবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেল মন্ত্রী থাকাকালীন মছলন্দপুর স্টেশন থেকে স্বরুপনগর পর্যন্ত নতুন রেল লাইন পাতার প্রস্তাব পাশ হয়। কিন্তু তিনি রেলমন্ত্রী ছাড়ার পর থেকে প্রকল্পটি কাজ আটকে ছিল। এরপর দীর্ঘদিন থেকে আন্দোলন চলছিল। অবশেষে রেল দপ্তরের পক্ষ থেকে রেল লাইন তৈরির কাজ শুরু হবে বলে জানানো হয়েছে। রেল দপ্তরের একটি প্রতিনিধি দল এই জায়গা পরিদর্শন করে দ্রুত কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছে। স্বরুপনগর এলাকায় রেলপথ না থাকায় খুবই সমস্যার মধ্যে বাস ,ট্রেকার, অটো করে যাতায়াত করতে এলাকার কয়েক লক্ষ মানুষকে। রেল লাইন হলে যাতায়াতের ক্ষেত্রে ভীষণ সুবিধা হবে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment