দেশ 

দেশের বৃহত্তর স্বার্থে,বিজেপিকে আটকাতে বিরোধী জোটের স্বার্থে বড় আত্মত্যাগ করতে চলেছে রাহুলের কংগ্রেস

শেয়ার করুন
  • 33
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদন : বিজেপি বিরোধী জোট তৈরিতে জাতীয় দল হিসেবে কংগ্রেস যে সব রকম আত্মত্যাগ করতে প্রস্তুত তা কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বহুবার প্রকাশ্যে মন্তব্য করেছেন। তবু রাজনীতিতে অনেক সময় পরিস্থিতির বিচারে রাজনৈতিক দলগুলি এসব প্রতিশ্রুতির কথা ভুলে যায়। কিন্ত কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী আন্তরিক উদ্যোগ নিয়ে বিজেপি বিরোধী জোট করতে যে বদ্ধপরিকর তা আরও একবার প্রমাণ মিলতে চলেছে। সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান পিজি কুরিয়েনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ১ জুলাই। নিয়ম মত রাজ্যসভার বিরোধী দল হিসেবে ডেপুটি চেয়ারম্যান পদটির প্রাপ্য কংগ্রেসের । ভোটাভুটি হলে কংগ্রেসের ৫১ জন সাংসদ এবং বিরোধীদের ভোট মিলিয়ে কংগ্রেসে মনোনীত প্রার্থী ডেপুটি চেয়ারম্যান পদে জিতে যাবেন। কিন্ত কংগ্রেস দল বৃহত্তর স্বার্থে ডেপুটি চেয়ারম্যান পদ এবার তৃণমূল কংগ্রেসকে দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। সম্প্রতি সোনিয়া গান্ধীর রাজনৈতিক সচিব আহমেদ প্যাটেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে এই প্রস্তাব দিয়েছেন। জানা গেছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও এই প্রস্তাব গ্রহণ করেছেন ।  আসন্ন বাদল অধিবেশনেই রাজ্যসভায় ডেপুটি চেয়ারম্যানের পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে তৃণমূল। কংগ্রেসের ৫১ জন সাংসদ , তৃণমূলের ১৩ জন সাংসদ সহ অন্য বিরোধীদের কয়েকটি ভোট ম্যানেজ করতে পারলেই রাজ্যসভায় ডেপুটি চেয়ারম্যান পদে বিজেপিকে হারানো সহজ হবে। বর্তমানে রাজ্যসভায় বিজেপির সদস্য রয়েছেন ৬৯ জন।

তবে কংগ্রেসের এই আত্মত্যাগ রাজনীতিতে এক নজীর হিসেবে চিহ্নিত হবে তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন , সোনিয়া-রাহুলের এই কৌশলি চালে বিজেপি যেমন দিশেহারা হয়ে যাচ্ছে একই সঙ্গে সুযোগ-সন্ধানী আঞ্চলিক দলগুলিও বেকায়দায় পড়েছে।


শেয়ার করুন
  • 33
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment