কলকাতা 

করোনা লড়াইয়ে নিজেদের স্বার্থ ভুলে যাঁরা সমাজের হয়ে কাজ করছেন, তাঁদের প্রতি কোনও কৃতজ্ঞতাই যথেষ্ট নয় : মমতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কয়েক দিন ধরে করোনা নিয়ে ঘন্টা পর ঘন্টা বৈঠক , হাসপাতাল পরিদর্শন , লকডাউনের সময় সাধারন মানুষের যাতে কোনো অসুবিধা না হয় তার জন্য বাজার পরিদর্শন করে একা হাতে রাজ্যকে সামলালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । লকডাউনের প্রথম রবিবার করোনা মোকাবিলায় স্বাস্থ্যকর্মী  স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ এবং আপৎকালীন পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত অন্য সব কর্মীর মনোবল বাড়ানোর চেষ্টা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার সকালে টুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী। নিজেদের স্বার্থ ভুলে যাঁরা সমাজের হয়ে কাজ করছেন, তাঁদের প্রতি কোনও কৃতজ্ঞতাই যথেষ্ট নয়— লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রবিবার সকাল ১০টা ৪৮ মিনিট নাগাদ টুইট করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী সেখানে লেখেন,‘‘কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়ার এই সময়ে যাঁরা এগিয়ে এসেছেন, সেই সব চিকিৎসক,নার্স, প্যারামেডিক্যাল কর্মী, পুলিশকর্মী, সরকারি কর্মী,জরুরি পরিষেবা কর্মী,সাফাইকর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকদের জন্য আমার হার্দিক কৃতজ্ঞতা এবং প্রশংসা।’’

Mamata Banerjee
@MamataOfficial
I would like to convey my heartfelt gratitude & appreciation for all the Doctors, Nurses, Paramedical Staff, Police Personnel, Govt. Officials, Emergency Response Personnel, Sanitation Workers & Volunteers who have come forward in this hour of need to fight the COVID-19 (1/2)
Mamata Banerjee
@MamataOfficial
No words are enough to thank these individuals who are standing up for the community & performing their duties selflessly in these times. They are putting the interest of society above anything else which makes their contribution & perseverance an inspiration for us all. (2/2)।

টুইটের দ্বিতীয় অংশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছেন, ‘‘এই সময়ে সমাজের স্বার্থরক্ষায় যাঁরা এগিয়ে এসেছেন এবং নিজেদের স্বার্থ বিসর্জন দিয়ে যাঁরা কাজ করছেন, তাঁদের ধন্যবাদ জানানোর জন্য কোনও কথাই যথেষ্ট নয়। তাঁরা সমাজের স্বার্থকে অন্য সব কিছুর ঊর্ধ্বে রাখছেন, যার ফলে তাঁদের অবদান এবং অধ্যবসায় আমাদের সকলের জন্য অনুপ্রেরণা হয়ে উঠছে।’’

করোনা রুখতে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যোগে খুশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কখনও হাসপাতালে, কখনও বাজারে, কখনও জনবহুল এলাকায় নিজেই হাজির হয়ে গিয়ে যে ভাবে সাধারণ জনতাকে সচেতন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যেও তার প্রশংসা হচ্ছে। তবে এ দিন সকালে টুইট করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বোঝানোর চেষ্টা করেছেন, নোভেলকরোনা সংক্রমণ ঠেকাতে তিনি একা লড়ছেন না। লড়ছেন চিকিৎসক, নার্স, প্যারামেডিক্যাল কর্মী, পুলিশকর্মী, সরকারি কর্মী, জরুরি পরিষেবা কর্মী, সাফাইকর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবকরাও।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment