দেশ 

লকডাউন ভাঙলে দুবছর জেল ও জরিমানা দুই হতে পারে ; আইনানুযায়ী কড়া পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ কেন্দ্রের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : করোনার থাবায় ইউরোপ-আমেরিকাকে বিধ্বস্ত হতে দেখে নড়েচড়ে বসেছে আমাদের দেশ ভারত । প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ইতিমধ্যেই এই ভাইরাস থেকে নিজেদেরকে নিরাপদ রাখতে বাড়িতে বন্দী থাকতে পরামর্শ দিয়েছেন । বলা যেতে আগামী তিন সপ্তাহ লকডাউন করতে বলেছেন।

এবার বিভিন্ন রাজ্যের মানুষদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে তৎপর হচ্ছে কেন্দ্র।এমনিতে রাজ্যের মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি সাধারণত রাজ্য সরকারের অধীনেই থাকে, কিন্তু এই করোনা পরিস্থিতিতে আইনি পথ  অবলম্বন করে রাশ ধরছে কেন্দ্রের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, করোনা ভাইরাসের  বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে এবার আসরে নামছে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর, “কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজনীয়তা” বিবেচনা করে পদক্ষেপ করবে তারা। যাঁরা লকডাউন  না মেনে রাস্তায় বের হবেন, তাঁদের বিরুদ্ধে যাতে কড়া আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয় এই জন্যে রাজ্য সরকারগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে মোদি সরকার।

একটি সূত্র জানিয়েছে, রাজ্যগুলির মুখ্য সরকারি আমলাদের সঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব এবং অধ্যক্ষ সচিব, পুলিশ প্রধান সহ দিল্লির উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা এক বৈঠক করেছেন। ওই বৈঠকে রাজ্যগুলিকে বলা হয়েছে যে, লকডাউন মেনে চলার বিষয়ে কেন্দ্রের নির্দেশ অনুসরণ করতে হবে তাদের।

 

এই লকডাউন পরিস্থিতি কার্ফু কিনা তা জানতে চাওয়া হলে কেন্দ্রীয় আধিকারিকরা ব্যাখ্যা করে বলেন যে এটি ঘোষিত কার্ফু না হলেও একরকম সেই পরিস্থিতিই। কেননা এই রোগটি এমন যে যত মানুষ একে অপরের সঙ্গে মিশবেন ততই এর সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়বে। তাই দয়া করে ঘরবন্দিই থাকুন, প্রধানমন্ত্রীর সুরে সুর মিলিয়েই বলছেন কেন্দ্রীয় সরকারি আধিকারিকরা।

জানা গেছে, বিভিন্ন রাজ্যেও যেহেতু এখন এনডিএমএ অ্যাক্ট প্রয়োগ করা হবে, তাই ওই আইনের অধীনে কঠোর পদক্ষেপ করা হবে। লকডাউন না মেনে অযথা রাস্তায় বের হলে আইনভঙ্গকারীদের জরিমানা করা হবে। শুধু জরিমানা দিয়েই মিলবে না রেহাই, হতে পারে জেলও। ওই আইন অনুসারে লকডাউন না মেনে রাস্তায় বেরোনোর জন্যে দুই বছরের কারাদণ্ড এবং জরিমানা বা দুটোই হতে পারে। এক্ষেত্রে ১৮৮ ধারা প্রয়োগ করা হবে যাতে ৬ মাসের জেল এবং জরিমানা বরাদ্দ রয়েছে।

দেশ জুড়ে লকডাউনের জন্যে জারি করা নির্দেশিকাতে কেন্দ্রীয় সরকার বলেছে যে, যাঁরা এই “নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা” লঙ্ঘন করবেন তাঁদের দুর্যোগ মোকাবিলা আইনের ৫১ থেকে ৬০ ধারায় এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment