কলকাতা 

রাজ্যসভার পঞ্চম আসনে বাম-কংগ্রেস প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য , মমতা কী করবেন ?

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : গতকাল তৃণমূল নেত্রী রাজ্যসভার চারটি আসনে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছেন । অর্পিতা-মৌসম-সুব্রত-দ্বীনেশ তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন । এদের জয় সুনিশ্চিত । পঞ্চম আসনে বাম-কংগ্রেস জোটের প্রার্থীর জয় নিশ্চিত । তাই পঞ্চম আসনে বাম-কংগ্রেস কাকে প্রার্থী করে সেদিকেই তাকিয়ে ছিল রাজ্যের মানুষ । বাম-কংগ্রেস জোটের প্রার্থীর হিসাবে বিশিষ্ট আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের নাম ঘোষণা হওয়ার পরেই প্রশ্ন উঠেছে মমতা কি মেনে নেবেন এই প্রার্থীকে ? যদি তৃণমূল প্রার্থী দেয় তাহলে বিকাশের জয় নিযে সংশয় থেকে যাবে । কারণ কংগ্রেস ও বাম বিধায়ক ছাড়াও তৃণমুলের কম করে ২৭টি ভোট অবশিষ্ট থাকবে তাদের চারজন প্রার্থীকে জেতানোর পরেও । তাছাড়া বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের সঙ্গে মমতার সর্ম্পক ভাল নয় । তাই রাজনীতির এই সুযোগ কী হাতছাড়া করবেন মমতা ? সেটাই এখন আলোচনা বিষয় হয়ে উঠেছে ।

তবে বিকাশের যোগ্যতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই । যদি বিজেপি বিরোধিতায় মমতা আন্তরিক হন তাহলে হয়তো কোনো সমস্যায় হবে না । একটা জায়গায় খটকা রয়েছে সেটা হল সারদা-নারদার কাঁটায় মমতা যে বিদ্ধ হচ্ছেন তার নেপথ্যে রয়েছে এই বিকাশ । তিনি আইনি লড়াই চালিয়ে সারাদায় সিবিআই করেছিলেন । সেই ক্ষত কি মমতা ভুলে যাবেন ?

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুর কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছিলেন মিমি চক্রবর্তী। বিজেপির প্রার্থী ছিলেন অনুপম হাজরা। তাঁদের বিরুদ্ধে বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য জিতবেন বলেই আশা করেছিলেন বাম-কংগ্রেস জোটের নেতারা। কিন্তু তিনি জিততে পারেননি। ২০০৫ থেকে ২০১০ সাল— পাঁচ বছর সামলেছেন কলকাতা পুরসভার মেয়রের দায়িত্ব। পেশাগত ভাবে আইনজীবী হলেও বাম রাজনীতির সঙ্গে ছাত্রাবস্থা থেকেই তাঁর যোগ। সেই বিকাশকেই রাজ্যসভায় নিয়ে যেতে চাইছে রাজ্যের বিরোধী জোট।

কংগ্রেস সূত্রে খবর, তাদের প্রথম পছন্দের প্রার্থী ছিলেন সীতারাম ইয়েচুরি। কিন্তু বামেদের পক্ষ থেকে বিকাশের নাম পাঠানো হয় সিপিএম পলিটব্যুরোতে। পলিটব্যুরোও বিকাশের নামেই সিলমোহর দেয়। এর পর বিকাশের নাম কংগ্রেসকে জানানোর পর কংগ্রেসের রাজ্য নেতৃত্ব তাতে আপত্তি করেনি। দলীয় নেতৃত্বের একটি সূত্রে খবর, বিকাশের প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি এআইসিসি-কে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ওই পাঁচ আসনের ভোট হবে ২৬ মার্চ সকাল ন’টা থেকে বিকেল চারটে পর্যন্ত। মনোনয়ন জমা দিতে হবে ১৩ মার্চের মধ্যে। স্ক্রুটিনি ১৬ মার্চ।

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment