দেশ 

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দেশের চার মুখ্যমন্ত্রী,নীতি আয়োগের বৈঠকেই মোদী বিরোধী মুখ হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আত্মপ্রকাশ করতে চলেছেন

শেয়ার করুন
  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদক : শনিবার দিল্লিতে পৌছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথমেই দেখতে যান প্রাক্তণ প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীকে।এইমস গিয়ে বাজপেয়ীকে সরাসরি দেখতে না পেলেও তিনি তাঁর শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নেন। এরপরেই তিনি চলে যান অন্ধপ্রদেশ ভবনে। সেখানে অপেক্ষা করছিলেন দেশের তিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অন্ধপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু,কেরলের মুখ্যমন্ত্রী  পিনরাই বিজয়ন ও কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী। এই তিন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করার পর দিল্লির উপ-রাজ্যপালের কাছে চিঠি দেন। এই চিঠিতে ওই তিনজন মুখ্যমন্ত্রী দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী সাংবিধানিক অধিকারের দাবিতে যে ধর্ণা কর্মসূচি চালাচ্ছেন  তার পরিপ্রেক্ষিতে উদভুত পরিস্থিতির সমাধান বের করার জন্যই তাঁরা উপ-রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করতে চান বলে জানানো হয়। কিন্ত কিছুক্ষন পরেই রাজ-নিবাস থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় উপ-রাজ্যপাল এখন রাজ-নিবাসে নেই সুতরাং সাক্ষাৎ সম্ভব নয়। সঙ্গে সঙ্গে আগুনে ঘি পড়লে যেমন দপ করে জ্বলে ওঠে সেইভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজধানী শহরে জ্বলে উঠলেন। সাংবাদিক সম্মেলন করে সরাসরি তোপ দাগলেন দিল্লির উপ-রাজ্যপালের বিরুদ্ধে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে এই সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। কয়েক মাস আগেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে অনেকেই বিরূপ মনোভাব পোষন করতেন বিশেষ করে বামেরা তো বটেই। কিন্ত শনিবার দিল্লিতে জাতীয় রাজধানী শহরে অন্ততঃ দেশের তিনটি প্রধান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা মমতাকেই তাঁদের নেত্রী হিসেবে কার্যত মেনে নিলেন। এর মধ্যে সিপিএমের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও আছেন।

মোদীজি পরিকল্পনা কমিশন তুলে দিয়ে নীতি আয়োগ গঠন করেছেন চার বছর আগেই। কিন্ত আজই প্রথম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই বৈঠকে যোগ দিচ্ছেন। দিল্লি সূত্রে যে খবর পাওয়া যাচ্ছে আজকের নীতি আয়োগের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বিরোধী দলের মুখ্যমন্ত্রীদের নানা বিরূপ প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হবে। রাজ্যগুলিকে তাদের সাংবিধানিক অধিকার মত কাজ করতে দেওয়ার দাবি উঠবে আজকের বৈঠকে। একইসঙ্গে জনগণ দ্বারা নির্বাচিত সরকারকে সংবিধান মোতাবেক চলতে দিতে হবে এই দাবিতে সরব হবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের প্রতি কেন্দ্র সরকার যে বিমাতৃসুলভ আচরন করছে তা নিয়ে সরব হবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে জানা গেছে। আক্ষরিক অর্থে আজ নীতি আয়োগের বৈঠক থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের রাজনীতিতে মোদী বিরোধী প্রধান মুখ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছেন। আগামী দিনে দেশের রাজনীতির গতি-প্রকৃতি যে বাংলা থেকেই নির্ধারিত হবে তা বলাই বাহুল্য মাত্র।


শেয়ার করুন
  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment