কলকাতা 

‘শোভনদা ফিরে আসুন’ এই আহ্বানের পাল্টা হিসাবে ‘ববিদাকে আবার চাই’ ব্যানার রাজনীতিতে উত্তাল কলকাতা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিবেদেক : দক্ষিন কলকাতার কয়েকটি এলাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের প্রতি সমর্থন জানিয়ে ব্যানার । শোভন আবার সক্রিয় হয়ে কলকাতার মেয়র হিসাবে ফিরে আসুক এই কামনা করে ব্যানার –পোস্টার দেওয়া হয়েছিল । পোস্টারে ছিল কাতর আহ্বান ছিল‘ শোভনদা ফিরে আসুন’। যদিও এখনও পর্যন্ত ‘শোভনদা’ এনিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি । তবে ববি বা ফিরহাদ হাকিমের পক্ষেও একই ধরনের ব্যানার পোস্টার দেখে বিস্মিত কলকাতার নাগরিকরা । কেন ববি হাকিমের অনুগামীরা এই কাজ করতে গেলেন ? এটাই এখন কলকাতার রাজনীতিতে আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছে ।

শনিবার দুপুর থেকে শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড়-সহ উত্তর কলকাতার বেশ কিছু জায়গায় ফিরহাদ হাকিমকে নিয়ে এই ব্যানারটি চোখে পড়ে ।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং‌ ফিরহাদ হাকিমের ছবি-সহ ওই ব্যানারে একদম উপরে লেখা রয়েছে, “ধন্যবাদ কলকাতা মহানাগরিক মাননীয় শ্রী ববি হাকিম মহাশয়কে এক বছরের মধ্যে কলকাতাকে বিশ্বের দরবারে শ্রেষ্ঠ আসনে বসিয়ে এক অনন্য থেকে অনন্যতম নজির গড়ার জন্য। আপনার অসাধারণ প্রশাসনিক দক্ষতাকে জানাই কুর্ণিশ ও ধন্যবাদ, যার জন্য কলকাতা কর্পোরেশন পুনরায় তার স্ব-গরিমায় মানুষের সেবায় বিরাজ করছে।’’ ব্যানারের নীচে দু’বার লেখা— ‘ববিদাকে আবার চাই’।

শোভন চট্টোপাধ্যায়ের ব্যানারে ছিল বিজেপির প্রতীক পদ্মফুল । আর ‘ববিদাকে আবার চাই’ এই পোস্টারে কোনো প্রতীক নেই, আছে মমতার ছবি । এটা তো স্পষ্ট মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর্শীবাদ যদি সত্যিই ববি-র উপর থাকে তাহলে তো এই ধরনের পোস্টার দেওয়ার কোনো অর্থ নেই । এদিকে এই ব্যানারকে ঘিরে সুর চড়িয়েছে বিজেপি । বিজেপির নেতারা বলছেন,ফিরহাদকে তৃণমূলের সবাই মেয়র হিসাবে চাইছেন কিনা সেটাই এখন বড় প্রশ্ন ।

যাইহোক তবে এটা ঠিক ‘শোভনদা ফিরে আসুন’ এই আহ্বানের পাল্টা হিসাবে ‘ববিদাকে আবার চাই’ এই ধরনের পোস্টারে অস্বস্তিতে পড়েছে তৃণমূল নেতৃত্বও । যদিও ফিরহাদ হাকিম নিজে বলেছেন, ‘‘আমরা দলের সৈনিক। এ সব ভোটের বিষয় দল ঠিক করবে। দল থেকে যে লিস্ট বেরোবে, তাতে সব কিছু স্পষ্ট হবে।’’ তবে এক সংবাদ-মাধ্যম সূত্রে খবর , কলকাতা পুরসভার মেয়র পদে ফিরহাদকে প্রার্থী করে ভোটে যেতে নাকি তৃনমূল নেত্রীকে নিষেধ করেছেন ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর । আর সেখান থেকেই কী ফিরহাদ অনুগামীরা দিশাহীন হয়ে পড়েছেন ? কারণ মমতা চাইলে ফিরহাদ একবার কেন দশবার মেয়র হতে পারবেন । আর তৃণমূল নেত্রী যদি না চান তাহলে ফিরহাদ পুরসভাতে প্রার্থীই হতে পারবেন না । তা সত্ত্বেও আগ বাড়িয়ে শোভনকে টেক্কা দিতে ফিরহাদ অনুগামীদের ব্যানার রাজনীতি বুমেরাং হবে না তো ? সেটাই লাখ টাকার প্রশ্ন ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment