কলকাতা 

“কেউ কেউ বলে আমি মুসলমান তোষণ করি। কিন্তু আমি আসলে মানবতার তোষণ করি” : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : “কেউ কেউ বলে আমি মুসলমান তোষণ করি। কিন্তু আমি আসলে মানবতার তোষণ করি।” তিনি বলেন, “আজকাল কেউ কেউ উদ্ভট ধর্মের কথা বলে। যাদের ভাল লাগবে ওদের তাদের রাখবে, আর যাদের ভাল লাগবে না তাদের বের করে দেবে। আমরা ওই ধর্মের বিশ্বাসী নয়।” বৃহস্পতিবার ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা স্বামী প্রণবানন্দের জন্ম-জয়ন্তীর অনুষ্ঠান ছিল কলকাতায় নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে। এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একথা বলেন।

পুরভোটের মুখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই মন্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক মহলে চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে । কারণ ভারত সেবা সংঘের সভায় এই ধরনের মন্তব্যের যথেষ্ট তাৎপর্য রয়েছে । ভোটের সময় বিজেপি যে আবার হিন্দুত্বে তাস খেলতে পারে সেটা অনুমান করেই মুখ্যমন্ত্রী আগে থেকে এই মন্তব্য করে বিজেপিকে জবাব দিয়ে রাখলেন ।

রাজনৈতিক মহল মনে করছে, পুরভোটের প্রচারে বিজেপি যে তাঁর বিরুদ্ধে তোষণের রাজনীতিকে হাতিয়ার করবে সেটা ভালমতোই জানেন মমতা৷ তাই আগে থেকেই নিজের নীতি স্পষ্ট করলেন তিনি৷ তবে গেরুয়া শিবির সেটা আদৌ মানবে কিনা সেটাই ব্যাপার৷উল্লেখ্য, লোকসভা ভোটের ফল বেরোনোর পর শোনা যায়, দলের নেতা-মন্ত্রীদের থেকে দিদি যখন ১৮ টি আসনের পরাজয়ের কারণ শুনতে চান, তখন অধিকাংশেরই জবাব ছিল যে মেরুকরণের রাজনীতিরই খেসারত দিতে হয়েছে তাঁদের। বেশিরভাগ হিন্দু প্রধান এলাকাতেই ভরাডুবি হয়েছে দলের। বিপরীতে মুসলিম অধ্যুষিত এলাকাগুলিতে দলের জয়ের ব্যবধান বেড়েছে। এমনকী বাম বা কংগ্রেসের হিন্দু ভোট যখন বিজেপি-র দিকে গিয়েছে, তখন তাদের মুসলিম ভোট তৃণমূলের পেয়েছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment