কলকাতা 

আটার প্যাকেটে হোরোইন পাচার হাতে-নাতে ধরল কলকাতা পুলিশ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আটার প্যাকেটে সিল করে পাচার করা হচ্ছিল ব্রাউন সুগার বা হেরোইন। গোপন সূত্রে সেই খবর পেয়ে মাণিকতলা থানা এলাকা থেকে প্যাকেট সহ রবিবার হাতেনাতে ধরা পড়ল এক ব্যক্তি ।

নদিয়ার পলাশিপাড়ার বাসিন্দা ওই ব্যক্তিকে মানিকতলা এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাঁর কাছ থেকে পাওয়া গিয়েছে আড়াই কেজিরও বেশি হেরোইন। এসটিএফের তদন্তকারীদের দাবি, প্রথমে তল্লাশি করে জসিমউদ্দিনের কাছ থেকে পাঁচটি আটার প্যাকেট পাওয়া যায়। সেই প্যাকেটে আটার বদলে ভরা ছিল বাদামি রঙের পাউডার। পুলিশের দাবি, ব্রাউন সুগার বা এক ধরনের হেরোইন ওই বাদামি গুঁড়ো। কলকাতা পুলিশের দাবি, বাজেয়াপ্ত হওয়া ওই হেরোইনের আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমপক্ষে সাড়ে তিন কোটি টাকা

 জানা গিয়েছে মুর্শিদাবাদ থেকে ওই হেরোইন সংগ্রহ করেছিল জসিমউদ্দিন। তদন্তকারীদের দাবি, মুর্শিদাবাদের কয়েকটি জায়গায় আফিম থেকে ওই ব্রাউন সুগার তৈরি করা হয়। তার পর সেই নিম্ন মানের হেরোইন নিয়ে আসা হয় কলকাতায়। এখানে সেই হেরোইনের একটি অংশ স্থানীয় বাজারে মাদক পাচারকারীদের মাধ্যমে বিক্রি হয়। বাকি অংশ চলে যায় উত্তর ভারতের মাদক কারবারিদের কাছে। তারা সেই নিম্নমানের হেরোইনে রাসায়নিক ব্যবহার করে আরও শুদ্ধ করে

জসিমউদ্দিনের পাশাপাশি কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ দুর্গারাণী মণ্ডল এবং রাধারাণী দাস নামে আরও দুজন মাদক পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে মুচিপাড়া থানা এলাকা থেকে উদ্ধার হয়েছে ৩২২ গ্রাম মাদক 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment