দেশ 

১৬ ফেব্রুয়ারি রবিবার রামলীলা ময়দানে শপথ নেবেন কেজরিওয়াল ; বিজেপি বিরোধী সব দলকে আমন্ত্রণ , থাকতে পারেন মমতাও

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি রবিবার রামলীলা ময়দানে উন্মুক্ত মঞ্চে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে তৃতীয়বার শপথ নেবেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল । আজ বুধবার দিল্লির উপ-রাজ্যপাল অনিল বৈজলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে শপথের দিনক্ষণ জানিয়ে এসেছেন কেজরীওয়াল। আজ সাত সকালেই রাজভবনে গিয়ে উপ রাজ্যপাল অনিল বৈজলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন অরবিন্দ কেজরীবাল। প্রায় ১৫ মিনিট কথা হয় দু’জনের। তার পরেই আম আদমি পার্টি (আপ)-র সূত্রে জানানো হয় রবিবার তৃতীয় বারের জন্য দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিতে চলেছেন কেজরীওয়াল।

তবে শপথের আগে সাংবিধানিক নিয়ম মেনে রাজ্যপালের কাছে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেবেন কেজরীওয়াল। অন্য দিকে আজই বৈঠকে বসছেন আপ বিধায়করা। সেখানে বিধায়ক দলের নেতা নির্বাচন হবে। সেখানে কেজরীওয়ালই যে দলনেতা হতে চলেছেন, তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই। তার পর সরকার গঠনের দাবি জানাবেন দলনেতা।

কিন্তু সাংবিধানিক এই নিয়মকানুনের বাইরেও সবচেয়ে চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে শপথের মঞ্চে কারা কারা থাকবেন তা নিয়ে। ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা-কংগ্রেস জোটের বিপুল জয়ের পরে হেমন্ত সোরেনের শপথে যে ছবি দেখা গিয়েছিল, কেজরীওয়ালের শপথগ্রহণের মঞ্চ তার চেয়েও ব্যাপ্তিতে বড় হতে পারে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। আপ সূত্রে খবর, কংগ্রেস-সহ বিরোধী সব দলের নেতা-নেত্রীদের আমন্ত্রণ জানানো হবে। থাকতে পারেন  এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তবে আপ সূত্রে খবর, আগে দলনেতা নির্বাচন, সরকার গঠনের দাবি জানানো-সহ যাবতীয় সাংবিধানিক প্রক্রিয়ার পর্ব সারা হওয়ার পরেই আমন্ত্রণপত্র পাঠানো শুরু হবে।

তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসার পর কেজরিওয়াল চাইছেন এবারের শপথ গ্রহণের অনুষ্ঠানে দিল্লিবাসী উপস্থিত থাকুক । সেই দিকে লক্ষ্য রেখেই রামলীলা ময়দানে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে । এই অনুষ্ঠানে বিরোধী দলের সব নেতাকে আমন্ত্রণ জানানোর পাশাপাশি , সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদেরও আমন্ত্রণ জানানো হবে । মন্ত্রীসভায় দু একটা রদবদল হলেও আগের মন্ত্রীরাই থাকবেন বলে জানা গেছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment