জেলা 

পণ! পাত্রী গেলেন না শ্বশুরবাড়ি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিয়ের পর শুধুমাত্র টিভি না পাওয়ার কারণে বরপক্ষ অশান্তি করে যার জেরে শ্বশুরবাড়ি যেতে চাইলেন সদ্য বিবাহিত যুবতী । ঘটনাটি ঘটেছে পুরাতন মালদহ শহরে । এই শহরের ১২ ওয়ার্ডের খয়রাতি পাড়ার বাসিন্দা নিশীথ কুণ্ডুর সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয় মঙ্গলবাড়ির এক যুবতীর। যুবতীর বাবার ইংরেজবাজার শহরে কাপড়ের দোকান রয়েছে। সোমবার দুজনের বিয়ে হয়। মঙ্গলবার ছিল বাসি বিয়ে। মেয়ের পরিবারের দাবি, বিয়েতে পণ বাবদ নগদ টাকা, সোনার গয়না, আসবাবপত্র দেওয়া হয়েছে। তবে দাবি মতো টিভি দিতে না পারায় উত্তেজিত হয়ে পড়েন পাত্র পক্ষ। বিয়ে পর্ব হয়ে গেলেও তাঁরা মেয়েকে বাড়ি নিয়ে যেতে অস্বীকার করেন বলে অভিযোগ। এই নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে তুমুল ঝগড়া, এমনকি হাতাহাতিও হয় বলে দাবি স্থানীয়দের। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। 

এই পরিস্থিতিতে পাত্রীও শ্বশুরবাড়ি যেতে আপত্তি জানান। পাত্রীর এক আত্মীয় বলেন, “সামান্য টিভির জন্য মেয়েকে বাড়ি নিয়ে যেতে অস্বীকার করেন ছেলের বাড়ির লোকেরা। সেই পরিবারে আমরা মেয়েকে পাঠাতে চাই না।’’ পাত্রের পাল্টা বক্তব্য, “আমাদের কোনও দাবি ছিল না। বিয়ের পরে মেয়ের বাড়ির লোকেরা আমাকে ঘরজামাই থাকার প্রস্তাব দেয়। আপত্তি করতেই মারধর করে।ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শঙ্কু সিংহ বলেন, “বিয়ে নিয়ে দুপক্ষের একটা গোলমাল হয়েছিল। পুলিশ বিষয়টি দেখছে।মালদহ থানার আইসি শান্তিনাথ পাঁজা অবশ্য বলেন, “এখনও কোনও আনুষ্ঠানিক অভিযোগ পাইনি পেলে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment