জেলা 

দারিদ্র ও প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে মাধ্যমিকে উজ্জ্বল সাফল্য বড়িশার তিন পড়ুয়ার

শেয়ার করুন
  • 97
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি: বেহালার বরিশা কামালা বিদ্যমন্দির স্কুলে স্বাভাবিক ছাত্র ছাত্রীদের সঙ্গে পড়াশোনা করে, জন্ম থেকেই মুখ ও কান বধির এমন তিন জন ছাত্র ছাত্রীর সাফল্য নজর কেড়েছে এলাকাবাসীর।তাদের এই সাফল্যের নেপথ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে তাদের মায়েদের।দুই মায়ের আন্তরিক প্রচেষ্টা ও স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকার জোরে দারিদ্র্য ও প্রতিবন্ধকতাকে জয় করা সম্ভব হয়েছে।দরিদ্র পরিবারের সন্তান সন্দীপ পোড়ে ও তার বোন শম্পা পোড়ে জন্মের পর থেকেই মুখ ও কান বধির।অপর ছাত্র মলয় মন্ডল ।এরা তিনজনই  ৫২শতাংশ নম্বর নিয়ে সসম্মানে মাধ্যমিক পাশ করেছে।এই তিন জন ছাত্র ছাত্রীর মায়েদের বক্তব্য’, স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকাদের সহযোগিতার ফলে সব বাধা কাটিয়ে আমাদের প্রতিবন্ধি সন্তানদের এতো দূর লেখা পড়া শেখাতে পেরেছি।স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা শান্তা চৌধুরী  বলেন, আগে এই স্বাভাবিক ছেলেমেয়েদের মধ্যে থেকে একসঙ্গে এমন প্রতিবন্ধীদের পড়াশোনার ব্যবস্থা ছিল না। এখন সারা দেশ জুড়ে ইনকলুসিভ এডুকেশন চালু হয়েছে। কিন্ত অধিকাংশ ক্ষেত্রে দেখা যায় এই ধরণের ছেলেমেয়েরা পড়াশোনা বেশি দূর এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে না। আমরা এই যে স্বাভাবিক ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে রেখে এই তিনজন প্রতিবন্ধীকে পড়িয়ে  স্বসম্মানে পাশ করাতে পেরেছি ,এটা আমাদের শিক্ষকদেরও সাফল্য বলা যেতে পারে। আমরা এই কাজটি সফল করার ফলে ইনক্লুসিভ এডুকেশনও সাফল্য পেয়েছে ।


শেয়ার করুন
  • 97
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment