দেশ 

অনুরাগ-প্রবেশকে দিল্লির নির্বাচনী প্রচার থেকে সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিল কমিশন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : নির্বাচন বিধি চালু রয়েছে দিল্লিতে তা সত্ত্বে লাগামহীন মন্তব্য করে চলেছেন বিজেপির নেতারা । অমিত শাহ থেকে শুরু করে বিজেপির ছোট-বড়-মাঝারি সবাই নানা মন্তব্য করে চরেছেন । তবে সবাইকে টেক্কা দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর ও দিল্লির সাংসদ প্রবেশ সাহিব সিংহ । তাঁরা কোনো রকম রাখঢাক না রেখেই সাম্প্রদায়িক কুমন্তব্য করেছেন । এমনকি গুলি মারো মত মন্তব্য করেছেন স্বয়ং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর । এই অভিযোগ পাওয়ার পর এই দুই বিজেপি নেতাকে তারকা প্রচারের তালিকা থেকে সরিয়ে দিতে নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন ।

সূত্রের খবর, তারকা প্রচারকের তালিকা থেকে সরিয়ে দেওয়ার অর্থ এই নয় যে, অনুরাগ বা প্রবেশ দলের হয়ে ভোট প্রচার করতে পারবেন না। শুধু ওঁদের প্রচারের জন্য বরাদ্দ অর্থ দলের প্রার্থীর খাতে চলে যাবে। সোমবার দিল্লির এক নির্বাচনী জনসভায় গিয়ে অনুরাগ ঠাকুর বলেছিলেন, ‘‘দেশের বিশ্বাসঘাতকদের গুলি করে মারা উচিত।’’ তাঁর এই মন্তব্যের ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পরই তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি হয়। বিরোধীরা অনুরাগ ঠাকুরের নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জানায়। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হবে বলে ওই দিনই জানিয়েছিল কমিশন। ঘটনার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই অনুরাগকে তারকা প্রচারকের তালিকা থেকে সরিয়ে দিতে বলল তারা

অন্য দিকে, প্রবেশ সিংহ মঙ্গলবার হুমকি দিয়ে বলেছিলেন, ‘‘বিজেপি ক্ষমতায় এলে এক ঘণ্টার মধ্যে ফাঁকা করে দেব শাহিন বাগ।’’ এতেই থামেননি তিনি। শাহিন বাগের বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, “ওঁরা আপনাদের ঘরে ঢুকে মেয়েবোনেদের খুন, ধর্ষণ করবে। এখনও সময় আছে। আগামী দিনে কিন্তু মোদীশাহ বাঁচাতে আসবে না।

অনুরাগ বা প্রবেশই প্রথম নয়, বিতর্কিত মন্তব্য করে কমিশনের রোষে পড়েছিলেন আর এক বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র। ৪৮ ঘণ্টার জন্য তাঁর নির্বাচনী প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল কমিশন

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment