দেশ 

যোগী রাজ্যে নাবালিকাকে যৌন হেনস্থা করার দায়ে রুজু করা মামলা প্রত্যাহার না করার শাস্তি হিসাবে নির্যাতিতার মাকে পিটিয়ে খুন করল জামিনে মুক্ত অভিযুক্তরা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : নাবালিকাকে যৌন হেনস্থা করার অভিযোগ করেছিলেন মা । অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ ছয় অভিযুক্তকে গ্রেফতারও করে । কিন্ত সপ্তাহ খানেক আগে তারা জামিনে ছাড়া পায় । জামিন পাওয়ার পর থেকেই তাদের বিরুদ্ধে মামরা প্রত্যাহার করার জন্য চাপ সৃষ্টি করা হয় । কিন্ত মামলা তুলতে রাজি না হওয়ায় গত জানুয়ারি নির্যাতিতার মা, ৪০ বছরের ওই মহিলাকে রাস্তায় ফেলে নির্মম ভাবে পেটায় ছয় অভিযুক্ত। মারধর করা হয় তাঁদের এক আত্মীয়াকেও। এক সপ্তাহ হাসপাতালে থাকার পর শুক্রবার সন্ধ্যায় মৃত্যু হয়েছে ওই মহিলার। মারধরের সেই ঘটনার ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছেঘটনাটি ঘটেছে যোগীর রাজ্য কানপুরে । পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তদের নাম আবিদ, মিন্টু, মাহবুব, চাঁদ বাবু, জামিল ফিরোজ ২০১৮তে ওই মহিলার ১৩ বছরের মেয়েকে যৌন হেনস্থা করার অভিযোগ ওঠে এই জনের বিরুদ্ধে সেই ঘটনার জেরে তাদের গ্রেফতার করে জেলে পাঠিয়েছিল পুলিশ

গতজানুয়ারি স্থানীয় আদালত থেকে জামিনে ছাড়া পায় অভিযুক্তরা। তার পর মত্ত অবস্থায় চড়াও হয় নির্যাতিতার পরিবারের উপর। নির্যাতিতার মাকে লাঠি, ইট দিয়ে মারা হয়। ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, লাল কুর্তা পরিহিত ৪০ বছরের মহিলা রাস্তায় পড়ে রয়েছেন। তাঁর মুখে লাথি মারছে এক অভিযুক্ত। বাকিরাও দাঁড়িয়ে আছে পাশে। নির্যাতিতার বোনকেও হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ

ঘটনা নিয়ে কানপুরের এসএসপি অনন্ত দেও বলেছেন, ‘‘ জানুয়ারি নির্যাতিতার মাসহ তিন জনকে মারের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে জানা গিয়েছে, মামলা তুলে নেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করতেই এই কাজ করেছে তাঁরা আমরা চার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছি বাকি দুজনের খোঁজ চলছে’’ অপরাধীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ারও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি

ছবি : পিটিয়ে মারার ভাইরাল হওয়া ভিডিও থেকে নেওয়া হয়েছে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment