দেশ 

জেএনইউ কান্ড : দুই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রূপের সঙ্গে যুক্তদের তদন্তের স্বার্থে মোবাইল বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিল আদালত

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : গত ৫ জানুয়ারি জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ঢুকে পড়ুয়াদের মারধোর করার আগে যে দুটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে প্রচার চালানো হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে তা তদন্তের জন্য গ্রুপের সব সদস্যের মোবাইল বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিল দিল্লি হাইকোর্ট আদালত । গত জানুয়ারি জেএইউতে হামলার ঘটনায় অভিযোগ ওঠেইউনিটি এগেনস্ট লেফটএবংফ্রেন্ডস অব আরএসএসনামে এই দুটো হোয়াট্সঅ্যাপ গ্রুপের বিরুদ্ধে। তদন্তের স্বার্থে ওই গ্রুপের সমস্ত তথ্য যাতে অক্ষত অবস্থায় থাকে সেই আর্জি জানিয়েই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন জেএনইউএর তিন অধ্যাপক অমিত পরমেশ্বরন, শুক্লা সবন্ত এবং অতুল সুদ। সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে সোমবারই হোয়াটসঅ্যাপ, গুগল, ফেসবুক এবং অ্যাপল কর্তৃপক্ষকে ওই দুই গ্রুপের হোয়াটসঅ্যাপের তথ্য ছবি সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছিল। মঙ্গলবার গুগল এবং হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষকে আরও এক বার সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে আইন অনুযায়ী সমস্ত রকম পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিল আদালত

তবে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ আদালতকে দিন জানিয়েছে, এন্ডটুএন্ড এনক্রিপশনের জন্য ওই তথ্যগুলো তারা সরাসরি হাতে পাবে না তবে যে সব ফোন থেকে এই তথ্যগুলো আদানপ্রদান হয়েছে সেগুলো হাতে পেলেই ওই গ্রুপের সদস্যদের মধ্যে কী কথোপকথন হয়েছে তা পাওয়া সম্ভব হবে তার পরই আদালত ফোন বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেয় দিল্লি পুলিশকে  পাশাপাশি, হামলা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য দিয়ে পুলিশকে সহযোগিতা করার জন্য জেএনইউএর রেজিস্ট্রার প্রমোদ কুমারকে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি ব্রিজেশ শেঠি

গত জানুয়ারি জেএনএউ ক্যাম্পাসে ঢুকে পড়ুয়াদের উপর হামলা চালায় মুখ ঢাকা দুষ্কৃতীরা সেই ঘটনায় তোলপাড় হয় গোটা দেশ বসন্ত কুঞ্জ থানায় এই হামলার ঘটনায় তিনটে এফআইআর দায়ের হয় দিল্লি পুলিশের অপরাধ দমন শাখা সেই ঘটনার তদন্ত করছে তারা জানিয়েছে, দুই সন্দেহভাজনকে জেরা করা হবে সে দিনের ঘটনায় যাঁরা আহত হয়েছেন তাঁদের সঙ্গেও কথা বলবেন তদন্তকারীরা শুধু তাই নয়, ঘটনার দিন যাঁরা পুলিশের কন্ট্রোল রুমে ফোন করেছিলেন তাঁদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে সোমবারই জেএনএউ ছাত্র সংসদের সভাপতি ঐশী ঘোষসহ তিন জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment