কলকাতা 

বনধের নামে নোংরামি করেছে কংগ্রেস , ১৩ জানুয়ারি কংগ্রেসের ডাকা বৈঠকে যাব না বললেন মমতা , উনি বিজেপির হয়ে কাজ করছেন অভিযোগ আবদুল মান্নানের , দিল্লির বসদের কাছে বকা খেয়েছেন বলেই সিএএ বিরোধী বৈঠকে যোগ দেবেন না মমতা দাবি সুজনের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : সিএএ বিরোধিতার করার জন্য দেশের সব কটি বিজেপি বিরোধী দল ১৩ জানুয়ারি দিল্লিতে এক বৈঠক করতে চলেছে । কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোটের এই বৈঠকে যোগ দেবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । তিনি বলেছেন ধর্মঘটের নামে ‘গুন্ডামি’ হয়েছে, বাম-কংগ্রেস হাত মিলিয়ে ‘নোংরামি’ করছে । মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রণংদেহি মনোভাবের পরেই বিধানসভায় যৌথ সাংবাদিক বৈঠক করেন বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান ও সুজন চক্রবর্তী । তাঁরা এদিন অভিযোগ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির হয়ে কাজ করছেন ।

বুধবারের ধর্মঘট নিয়ে এ দিন বিধানসভাতেই মুখ খোলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কংগ্রেস এবং বামেদের বিরুদ্ধে ‘নোংরামি’ করার অভিযোগ তোলেন তিনি। বুধবারই তিনি এই ধর্মঘটকে আক্রমণ করে বলেছিলেন যে, গুন্ডামি বরদাস্ত করবেন না। তার পরে আজ বিধানসভায় আরও বিরক্তি উগরে দিয়ে তিনি জানান, দিল্লিতে ১৩ জানুয়ারি কংগ্রেসের ডাকে বিরোধী দলগুলির যে বৈঠক হওয়ার কথা, সেখানে তিনি যোগ দেবেন না। বামেদের সঙ্গে মিলে কংগ্রেস যে ভাবে বুধবার অর্থাৎ গতকাল বাস পুড়িয়েছে-আগুন লাগিয়েছে, তার প্রেক্ষিতেই তিনি কংগ্রেসের ডাকা বৈঠকে যোগ দিচ্ছেন না, জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বিধানসভার বিরোধী দলনেতা  আব্দুল মান্নান এ দিন অভিযোগ করেছেন যে, মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যের বিরোধিতা তিনি বিধানসভার ভিতরেই করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাঁকে বলতে দেওয়া হয়নি। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই তাঁকে বলতে বাধা দিয়েছেন বলে মান্নান জানান। দিল্লির বৈঠকে মমতার না যাওয়ার ঘোষণা সম্পর্কে মান্নান বলেন, ‘‘ওঁর জন্য দিল্লির বৈঠক আটকাবে না।’’ কিন্তু দেশ জুড়ে চলতে থাকা সিএএ-এনআরসি বিরোধী আন্দোলনের প্রধান মুখ যে ভাবে হয়ে উঠেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তাতে ১৩ জানুয়ারির বৈঠকে তাঁর অনুপস্থিতি গোটা বিরোধী শিবিরকেই যে অস্বস্তিতে ফেলবে, তা নিয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মধ্যে সংশয় কমই।

কংগ্রেসকে মুখ্যমন্ত্রীর আক্রমণ প্রসঙ্গে মান্নান প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘কী নোংরামিটা করলাম আমরা?’’ এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ধর্মঘট চান না বলে ধর্মঘট হবে না, এটা হতে পারে না বলে তিনি মন্তব্য করেন। মান্নানের কথায়, ‘‘গোটা ভারতে বন্‌ধ ডাকছি। আর তোমার জন্য এখানে বন্‌ধ করব না! তোমার বলে দেওয়া কায়দায় আমরা বিজেপির বিরোধিতা করব?’’

বামফ্রন্টের পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, ‘‘এই ধর্মঘট সফল হওয়ার পরে সম্ভবত দিল্লির বসদের কাছে উনি (মমতা) বকা খেয়েছেন।’’ পশ্চিমবঙ্গে কেন বন্‌ধ সফল হল? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘দিল্লির বসরা’ এই প্রশ্নই করেছেন আর সেই বকা খেয়েই তিনি বিরোধী দলগুলির বৈঠক বয়কট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন— তীব্র কটাক্ষ ছুড়ে এমনই বলেছেন সুজন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment