কলকাতা 

জেএনইউ কান্ডে প্রতিবাদ -বিক্ষোভে সরগরম বাংলাও

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিশ্বের অন্যতম প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয় জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের ভেতর ঢুকে গেরুয়া বাহিনী যে সন্ত্রাস চালিয়েছে তার প্রতিবাদে দেশের অন্যান্য অংশের সঙ্গে প্রতিবাদ আছড়ে পড়ল কলকাতাসহ সমগ্র বাংলায় । রাজ্য জুড়ে পথে নামল বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন। প্রেসিডেন্সি, যাদবপুর এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও বিক্ষোভরত পড়ুয়ারা নামলেন রাজপথে। বামেদের অন্যান্য গণসংগঠনও মিছিল করল শহরের বুকে। কোথাও কোথাও প্রতিবাদ মিছিলে শামিল হলেন বিশিষ্ট নাগরিকরাও। উত্তর থেকে দক্ষিণ, গোটা কলকাতাই মিছিল-নগরীর চেহারা নিল সোমবার।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল পড়ুয়া রবিবার রাতেই পথে নেমেছিলেন। সে মিছিল থেকে বিজেপি তথা সঙ্ঘ পরিবারকে তীব্র ধিক্কার দেওয়া হয়। সোমবার যে কলকাতায় এবং রাজ্যের নানা প্রান্তে পথে নামা হবে, সে কথাও বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটগুলি এবং রাজ্য নেতৃত্ব সোমবার রাতেই জানিয়ে দেন।

এসইউসিআই-এর ছাত্র সংগঠন ডিএসও এ দিন প্রতিবাদ মিছিল বার করে কলেজ স্ট্রিট থেকেই। পরে কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন ছাত্র পরিষদের প্রতিবাদ মিছিলও কলেজ স্ট্রিট এলাকা থেকেই শুরু হয়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সামনেও এ দিন বড়সড় বিক্ষোভের আয়োজন হয়েছিল। এসএফআই এবং ছাত্র পরিষদ একসঙ্গে শামিল হয় সে বিক্ষোভে। নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহের কুশপুতুল দাহ করা হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সামনে।
প্রতিবাদে উত্তাল ছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ও। বিক্ষোভের নেতৃত্বে ছিল এসএফআই।
তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনী তথা সুরকার দেবজ্যোতি মিশ্র, চলচ্চিত্র নির্মাতা অনীক দত্তদের মতো বিশিষ্ট নাগরিকরাও এ দিনের বিক্ষোভে শামিল হন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ নম্বর গেট থেকে বিকেলে দিকে এই মিছিল শুরু হয়। ৮বি বাসস্ট্যান্ড, যাদবপুর থানা ঘুরে আবার বিশ্ববিদ্যালয় গেটে গিয়েই মিছিল শেষ হয়। বেশ কিছু ক্ষণ রাস্তাও অবরোধ করে রাখেন বিক্ষোভকারীরা।
সন্ধ্যায় ফের উত্তপ্ত হয় কলেজ স্ট্রিট এলাকা। প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের তরফ থেকে যে মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছিল, সন্ধ্যায় সেটিই শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর থেকে বেরিয়ে সে মিছিল এগোয় রাজ্য বিজেপির সদর দফতরের দিকে। তবে মুরলীধর সেন লেনে ঢোকার আগেই সে মিছিলকে আটকে দেয় পুলিশ। ফলে পুলিশের সঙ্গে এসএফআই কর্মী-সমর্থকদের ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়।
সিপিএমের মহিলা সংগঠন গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি-সহ চারটি বামপন্থী মহিলা সংগঠনও এ দিন মিছিল করেছে জেএনইউ-এ হামলার প্রতিবাদে। দুপুর ২টো নাগাদ মৌলালি মোড় থেকে শুরু হয়ে চলে কলকাতা পুরসভা পর্যন্ত যায় সে মিছিল।
রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তেও কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা জেএনইউ কান্ডের বিরুদ্ধে ধিক্কার জানিয়ে মিছিল করে । এই সব মিছিলে জন সমাবেশ ছিল চোখে পড়ার মত । বাংলায় জেএনইউ কান্ডে কার্যত বিজেপি এবং এবিভিপি এক ঘরে হয়ে গেছে । বিজেপি সিএএ -র পক্ষে প্রচার অভিযানও থমকে গেছে ।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment