কলকাতা 

মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের এই রায় গণতন্ত্রের জয় , সংবিধানের জয় , দূনীর্তির বিরুদ্ধে জয় : ওয়েজুল হক

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : সুপ্রিম কোর্টের রায়ে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন বহাল তবিয়তে কাজ শুরু করতে পারবে । আজ সোমবার ৬ জানুয়ারি ২০২০ ভারতের শিক্ষা আন্দোলনের ইতিহাসে স্মরণীয় দিন হিসাবে চিহ্নিত হবে । এদিন সাংবিধানিক প্রশ্নে চলা মামলা দীর্ঘ ৫ বছর পর মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের বৈধতাকে স্বীকৃতি দিল সুপ্রিম কোর্ট । আজ সকাল সাড়ে দশটায় সুপ্রিম কোর্ট এক রায়ে বলেছে , পশ্চিমবাংলার ৬১৪টি সরকার অনুমোদিত মাদ্রাসাগুলি সংখ্যালঘু শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা পাবে । তবে শিক্ষক নিয়োগের দায়িত্ব পাবে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন ।

এই রায়ের পর স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বসিত বঙ্গীয় সংখ্যালঘু বুদ্ধিজীবী মঞ্চ । মঞ্চের সভাপতি অধ্যাপক ওয়েজুল হক প্রথম দিন থেকেই মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের পক্ষে সওয়াল করে এসেছেন । আজ দেশের শীর্ষ আদালতের রায় বের হওয়ার পর তিনি বাংলার জনরবকে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে বলেন , সুপ্রিম কোর্টের এই রায় গণতন্ত্রের জয় , সংবিধানের জয় , দূনীর্তির বিরুদ্ধে জয় । তিনি বলেন , কিছু মানুষ নিজেদের স্বার্থে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনকে তুলে দেওয়ার চেষ্টা করেছে । আমরা বঙ্গীয় সংখ্যালঘু বুদ্ধিজীবী মঞ্চ থেকে এই দূনীতিগ্রস্থদের বিরুদ্ধে প্রথম থেকেই সরব ছিলাম । আজকের সুপ্রিম কোর্টের রায় প্রমাণ করল সত্যের জয় হবে ।

আগামী দিনে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন রাজ্যের মাদ্রাসাগুলির শূন্য শিক্ষক পদ পূরণে দ্রূত ব্যবস্থা নেবে বলে অধ্যাপক ওয়েজুল হক আশা প্রকাশ করেন । উন্নতমানের শিক্ষক যাতে মাদ্রাসাগুলি পায় সেদিকে সজাগ দৃষ্টি রাখা হবে বলে বঙ্গীয় সংখ্যালঘু বুদ্ধিজীবী মঞ্চের সভাপতি ওয়েজুল হক দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment