কলকাতা 

অপেক্ষার অবসান সোমবারই মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের অস্তিত্বের প্রশ্নে চূড়ান্ত রায় দিতে চলেছে সুপ্রিম কোর্ট

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সেখ ইবাদুল ইসলাম : মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের বৈধতা নিয়ে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কাঁথির রহমানিয়া হাই মাদ্রাসা সাংবিধানিক প্রশ্নে যে মামলা করেছিল তার চূড়ান্ত নিস্পত্তি হতে চলেছে আগামী ৬ জানুয়ারি ২০২০ । উল্লেখ্য , বামফ্রন্ট সরকারের আমলে ২০০৮ সালে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন গঠন করা হয়। রাজ্যের ৬১৪টি সরকারি অনুমোদিত মাদ্রাসাগুলিকে সংখ্যালঘু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মর্যাদা দেওয়া হয় । আর সংবিধান মতে সংখ্যালঘু শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা থেকে শুরু নিয়োগ সংক্রান্ত সব বিষয়েই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে সংখ্যালঘু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালকরা । এটা সংবিধানের মৌলিক অধিকারের মধ্যে রয়েছে ।

সংবিধানের ৩০ নং ধারা স্পষ্ট বলা হয়েছে , সংখ্যালঘুরা ( ভাষাগত ও ধর্মীয় ) তাদের সংস্কৃতি –ঐতিহ্য ও শিক্ষার পরম্পরাকে রক্ষা করার জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করতে পারবে ও পরিচালনা করতে পারবে । সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সাহায্য করার ক্ষেত্রে সরকার কোনোভাবে বঞ্চনা করতে পারবে না ।

রাজ্যের মাদ্রাসাগুলিকে সংখ্যালঘু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মর্যাদা দেওয়ার ফলে স্বাভাবিকভাবেই সরকারের তৈরি মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন কাঁথি রহমানিয়ার আইনজীবী আবু সোহেল । তাঁর আবেদনের ভিত্তিতে ২০১৪ সালের মার্চ মাসে কলকাতা হাইকোর্ট মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনকে অবৈধ ও অসাংবিধানিক বলে রায় দেয় ।

পরবর্তীতে সরকার ডিভিশন বেঞ্চে যায় । সেখানে তৎকালিন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুরের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চও একই রায় প্রদান করেন । শেষ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় সরকার । ২০১৬ সাল থেকে একটানা প্রায় দুবছর সুপ্রিম কোর্টে এই মামলার শুনানী হয় । ২০১৮ সালের জুলাই মাসে শুনানী শেষ হয় । পরে রায় দেওয়া হবে বলে সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দেয় ।

সুপ্রিম কোর্ট সূত্রে জানা গেছে আগামী ৬ জানুয়ারি সোমবার বেলা ১০.৩০টায় মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন নিয়ে চূড়ান্ত রায় প্রকাশ হবে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment