জেলা 

বিধায়ক খুনে সিআইডি তদন্তের নির্দেশ আদালতের , বেকায়দায় মুকুল -জগন্নাথ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসের খুনের মামলায় নতুন করে সিআইডি তদন্তের নির্দেশ দিল রানাঘাট আদালত । এরফলে বিজেপি নেতা মুকুল রায় ও রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের বিরুদ্ধেও সিআইডি তদন্ত হবে । ফলে ২০২০-এর প্র্রথমের দিকেই মুকুল রায়কে অস্বস্তিতে পড়তে হল ।

এ প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়ে মুকুল রায় বলেন, ‘‘মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে। মিথ্যা মামলা দেওয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদত। মমতা ভাল করে জানেন খুনের ঘটনায় মুকুল যুক্ত নয়, তবুও লোকেদের দিয়ে জেনেবুঝে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এসব করাচ্ছেন’’। এ প্রসঙ্গে রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার  সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘‘রাজনৈতিক চক্রান্ত করা হচ্ছে। তবে বিচার ব্যবস্থার উপর আস্থা রয়েছে। তদন্তে সহযোগিতা করব’’।

সত্যজিৎ বিশ্বাস খুনের ঘটনায় মুকুলের বিরুদ্ধে সিআইডি তদন্তের নির্দেশ প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য করতে চাননি সত্যজিতের স্ত্রী তথা উনিশের লোকসভা নির্বাচনে রানাঘাটের তৃণমূলপ্রার্থী রুপালি বিশ্বাস।

গত বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি সরস্বতী পুজোর ঠিক আগের দিন একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস। সেখানেই তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। জনবহুল এলাকায় এই বেপরোয়া আক্রমণে হতভম্ব হয়ে পড়েন এলাকাবাসী। স্বভাবতই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় সারা রাজ্যে। শুরু হয় রাজনৈতিক চাপান উতোর। বিধায়ক হিসেবে একজন নিরাপত্তারক্ষী পেতেন সত্যজিৎ বিশ্বাস।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment