জেলা 

মাধ্যমিকে ৯১% পেয়ে হাওড়ার মেয়ে শিরীন তাবাসসুম স্ত্রীরোগ বিশেষঞ্জ হতে চায়

শেয়ার করুন
  • 23
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিবেদকঃ হাওড়া জেলার চেঙ্গাইলের সন্তান শিরীন তাবাসসুম এ বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৯১% নম্বর পেয়েছে। পড়াশোনাতে এমননিতেই ভাল তাবাসসুম আগামী দিনে চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন দেখছে। সে পড়াশোনা করেছে বর্ধমানের গোলাম আহমদ মোর্ত্তাজা প্রতিষ্ঠিত আবাসিক বিদ্যালয় মামুন ন্যাশনাল স্কুল থেকে। তার মতে এই স্কুলে ভর্তি হওয়ার পর থেকে এখনকার পরিবেশ শিক্ষাকে আয়ত্ত করতে সহায়ক হয়েছে। তার এই ভাল ফলের জন্য বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অবদানকে সে বারবার স্বীকার করছে। এক নজরে তার মাধ্যমিকের ফলের দিকে তাকালেই বোঝা যাবে কী অসম্ভব মেধা মেয়েটির মধ্যে। বাংলায় ৯০,ইংরেজিতে ৮২,অঙ্কে ৯২,পদার্থ বিদ্যায় ৯১,জীবন বিঞ্জানে ৯৩,ইতিহাসে ৯৩,ভূগোলে ৯৬ নম্বর পেয়েছে। সে উচ্চ-মাধ্যমিকেও মামুন ন্যাশনাল স্কুলেই ভর্তি হয়েছে। এখানেই সে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেনিতে পড়াশোনা করবে। এ প্রসঙ্গে শিরীনের পিতা ডা. রফিক জানালেন, মামুনে পড়াশোনা খুবই ভাল হয়। তাই ওকে আমরা আবার ওই স্কুলেই ভর্তি করেছি। ভবিষ্যতে কী হত চাও ? এই প্রশ্নের উত্তরে লাজুক মেয়েটির সংক্ষিপ্ত উত্তর চিকিৎসক হতে চাই। বাবা যেহেতু চিকিৎসক সেজন্য কী একই পেশা নিতে চাও? এই প্রশ্নের উত্তরে শিরীন জানালেন,আমি এমবিবিএস পাশ করার পর স্ত্রীরোগ বিশেষঞ্জ হতে চাই। কারণ আমাদের সমাজে চিকিৎসকের সংখ্য যেমন কম আছে একইভাবে স্ত্রীরোগ বিশেষঞ্জ চিকিৎসক আরও কম আছে। মানুষের সেবা করার জন্যই ডাক্তার হতে চাই বলে শিরীন মন্তব্য করে।

শিরীনের পিতা ডা. রফিকউদ্দিন জানালেন,মেয়েকে ডাক্তারি পড়ানোর ইচ্ছা আছে। মহান আল্লাহর রহমত থাকলে তা সম্ভব হবে। তবে উচ্চ-মাধ্যমিকে যাতে আরও ভাল ফল করতে পারে তার জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে শিরীন।


শেয়ার করুন
  • 23
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment