কলকাতা 

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকাকে শারীরিকভাবে হেনস্থার অভিযোগ , অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে , থানায় অভিযোগ দায়ের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : সিএএ আইনের পক্ষে জনমত তৈরির লক্ষ্যে এখন বিজেপি দল বিভিন্ন জায়গায় সভা করছেন । সোমবারও সন্ধ্যায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে সভা করছিল বিজেপি। সেই সভায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে কুরুচিকর মন্তব্য করা হয় বলে অভিযোগ । আর এর বিরুদ্ধে মন্তব্য করার দায়ে যাদবপুরের ইংরেজির অধ্যাপিকা দয়িতা মজুমদারকে শারীরিকভাবে হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে ।

দয়িতাদেবী সোস্যাল মিডিয়ায় অভিযোগ করেছেন, এক দল মাঝবয়সি মহিলা এ দিন তাঁকে ঘিরে ধরে মারধর করেন। তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে যাদবপুরের দু’জন ছাত্রও মার খান। ওই শিক্ষিকা যাদবপুর থানায় অভিযোগ করেছেন।

দয়িতাদেবীর অভিযোগ, রাস্তায় দাঁড়িয়ে জনসভা থেকে বিদ্বেষমূলক প্রচার চলছিল। অপপ্রচার চলছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ নিয়ে। তাঁর কথায়, ‘‘যাদবপুরের বিষয়ে উল্টোপাল্টা কথা শুনে আমি হাসতে হাসতেই বলি, এ-সব মিথ্যে কেন রটাচ্ছেন! এতেই কয়েক জন মহিলা চড়াও হয়ে মারধর শুরু করে। এমন ঘটনা যে প্রকাশ্যে আমাদের চেনাজানা পরিসরে ঘটতে পারে— সেটাই চরম দুশ্চিন্তার।’’

‘‘রাজনৈতিক দলের দুর্বৃত্তদের এমন কাণ্ডের ঘোর নিন্দা করি,’’ এক বিবৃতিতে বলেছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সংগঠন জুটা-র সাধারণ সম্পাদক পার্থপ্রতিম রায়।

বিজেপি-র দু’জন সাংসদও এ দিনের সভায় ছিলেন বলে অভিযোগ। রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু বলেন, ‘‘ঠিক কী ঘটেছে, জানি না। তবে আমাদের সভায় অন্য কেউ বিশৃঙ্খলা ঘটনোর চেষ্টা করলে তা আটকানো হবে। কিন্তু কাউকে মারধর সমর্থন করে না দল।’’

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment