দেশ 

‘‘মন্ত্রিসভা বা সংসদে দেশ জুড়ে এনআরসি করা নিয়ে কোনও আলোচনাই হয়নি। এনপিআর-এর মাধ্যমে কেউই নাগরিকত্ব হারাবেন না। এনপিআর-এ কারও নাম না থাকতে পারে। কিন্তু, তাতে কারও নাগরিকত্ব চলে যাবে না।’’ দেশজুড়ে বিক্ষোভের মুখে ঢোক গিলে পাল্টি খেলেন অমিত শাহ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ), জাতীয় নাগরিক পঞ্জি নিয়ে দেশ জোড়া বিক্ষোভের মধ্যেই রবিবার  মুখ খুলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশ জুড়ে এনআরসি করা নিয়ে কোনও কথা মন্ত্রিসভায় হয়নি বলে দাবি করেছিলেন তিনি বার নিজের মন্তব্য থেকে সরে এসেই মোদীর বক্তব্যকে সমর্থন করলেন অমিত শাহ মঙ্গলবার একটি সাক্ষাৎকারে তিনিও দাবি করে বসেন সংসদ বা মন্ত্রিসভায় দেশ জুড়ে এনআরসি করা নিয়ে কোনও আলোচনাই হয়নি

দিন মোদীকে সমর্থন করে অমিত শাহ দাবি করেন, ‘‘মন্ত্রিসভা বা সংসদে দেশ জুড়ে এনআরসি করা নিয়ে কোনও আলোচনাই হয়নি। বিরোধীরাই নিয়ে সাধারণ মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে।’’ সিএএস ও এনআরসি নিয়ে বিক্ষোভের মধ্যেই এনপিআর নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে

দিন অমিত শাহ সকল রাজ্য সরকারের কাছেই জনগণনা (এনপিআর) চালু করার জন্য আবেদন করেন। তাঁর দাবি, এনপিআর ইউপিএ আমলেই স্থির করা হয়েছিল। দরিদ্র মানুষের কাছে সমস্ত পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্যই এনপিআর প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন অমিত। তিনি দাবি করেন, ‘‘এনপিআরের কাজ দশ মিনিটেই হয়ে যাবে। জন মানচিত্র ছাড়া কেন্দ্র রাজ্য সরকারের উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। রাজ্য সরকারের মধ্যে কোনও আশঙ্কা থাকলে তা হলে তা সরিয়ে দিন। এনপিআরএর তথ্য এনআরসিতে ব্যবহার করা যাবে না। দুটি প্রক্রিয়ার মধ্যে কোনও লেনদেন নেই। এনপিআরএর জন্য কোনও নথি প্রয়োজন নেই।’’

 সাক্ষাৎকারে অমিত  বলেন, ‘‘আমি স্পষ্ট করে দিতে চাই যে এনপিআরএর মাধ্যমে কেউই নাগরিকত্ব হারাবেন না।  এনপিআর কারও নাম না থাকতে পারে। কিন্তু, তাতে কারও নাগরিকত্ব চলে যাবে না। দিন সাক্ষাৎকারে ডিটেনশন সেন্টার নিয়ে প্রশ্নের উত্তরে অমিত শাহ দাবি করেন, ‘‘এর সঙ্গে এনআরসি অথবা সিএএ কোনও যোগ নেই। অনুপ্রবেশকারীদের জন্যই ওই ডিটেনশন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে।’’ ব্যাপারে ভুল তথ্য ছড়ানো হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment