জেলা 

সামতা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও সম্পাদক হাফেজ মইনুদ্দিনের ইন্তেকাল ; একজন ভালো মানুষ চলে গেলেন ; আগামী কাল বেলা তিনটেয় জানাযা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে আল্লাহর ডাকে সাড়া দিয়ে চলে গেলেন আরামবাগের বিশিষ্ট মুসলিম ব্যক্তিত্ব এবং হুগলী জেলার বিখ্যাত দ্বীনি প্রতিষ্ঠান সামতা মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও সম্পাদক এবং জমিয়তের নেতা হজরত আলহাজ্ব হাফেজ মইনুদ্দিন সাহেব। আজ তিনি ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্নালিল্লাহে —রাজেউন ) । তিনি যে মাদ্রাসা স্থাপন করে গেছেন তা পশ্চিমবাংলার ইসলামি শিক্ষা-সংস্কৃতির প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে । সামতা মাদ্রাসাকে রাজ্যের অন্যতম প্রথম সারির খারিজী মাদ্রাসা হিসাবে সমগ্র দেশে পরিচিতি লাভ করেছে । আর এই সুনামের নেপথ্যে মরহুম হাফেজ মইনুদ্দিন সাহেবের অবদান স্বীকার করতেই হবে ।

মরহুম হাফেজ মইনুদ্দিন মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর বাংলার জনরব নিউজ পোর্টালের সম্পাদক ( সাম্মানিক ) সেখ ইবাদুল ইসলাম গভীর শোক ব্যক্ত করে বলেন , মরহুম মইনুদ্দিন সাহেব একজন মাটির মানুষ ছিলেন । ইসলাম ধর্ম ও সংস্কৃতি সম্পর্কে তাঁর পান্ডিত্য তুলনাহীন ছিল । তা সত্ত্বে তিনি কোনো দিন নিজেকে জাহির করতেন না । ব্যক্তিগতভাবে এলাকার মানুষ হওয়ার কারণে তাঁর সঙ্গে বেশ কয়েক বার আমার দেখা হয়েছে , কথা হয়েছে । কথা বলার সময় এমনভাবে তিনি কথা বলতেন যেন মনে হত আমার কোনো আত্মীয়ের সঙ্গে কথা বলছি । মাদ্রাসায় দেখা করতে গেলে কোনো দিন না খাইয়ে ছাড়তেন না । অতিথি পরায়ণ ছিলেন । তাঁর অমায়িক ব্যবহার আমাকে আজও মুগ্ধ করে । কর্মসূত্রে অনেক দূরে চাকরি করার কারণে তাঁর সঙ্গে আমার অনেক দিন দেখা হয়নি । কিন্ত মনের মধ্যে একটা অমোঘ টান ছিলই । তিনি আমার কোনো পরিচিতের সঙ্গে দেখা হলেই খোঁজ নিতেন । তাঁর ইন্তেকালে আমরা একজন ভাল মানুষ এবং দেশের সুসন্তানকে হারালাম । প্রার্থণা করি আল্লাহ যেন তাঁকে তাঁর কর্মের উপযুক্ত স্বীকৃতি দিয়ে পুরস্কৃত করেন ।

সরকারি সাহায্য না নিয়ে বিশাল আকারের কোরআন-হাদিস শিক্ষার জন্য মাদ্রাসা পরিচালনা করা যায় তার একটা নজির গড়েছিলেন তিনি। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছাত্ররা পড়তে আসেন এই মাদ্রাসায়। শুধু এই মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করাই নয়, দেশজুড়ে বৃহত্তর গণসংগঠন জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের সক্রিয় সংগঠক ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের সভাপতি মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি মরহুমের মাগফেরাত কামনা করে আল্লাহর কাছে বিশেষ দোয়া করেছেন । আগামী কাল বিকেল তিনটেয় তাঁর জন্মভিটা সাইবোনায় জানাযার নামায অনুষ্ঠিত হবে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment