কলকাতা 

‘‘ ভোটাররা ভোট দিয়েছেন বলে আমার আপনার সরকার আছে। আর আপনি বলছেন ভোটার কার্ড নহি চলেগা, বিজেপি কা মাদুলি চলেগা? গণতান্ত্রিক আন্দোলন বুলেট দিয়ে হয় না” : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : গতকাল এক সংবাদ-মাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ বলেছিলেন , ‘‘আধার কার্ড নাগরিকত্বের প্রমাণ নয়, ওটা ভিন্ন উদ্দেশ্যে বানানো হয়েছে’’। আজ তা নিয়ে মুখ খুললেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । তিনি অমিত শাহের এই মন্তব্যকে কটাক্ষ বলেন, ‘‘আধার নাগরিকত্বের প্রমাণ নয়, তাহলে কেন আধার কার্ড বানালেন? কেন আধার সংযুক্তিকরনের কথা বলছেন? বলছেন ভোটার কার্ড চলবে না। তাহলে কি বিজেপির মাদুলি চলবে?’’ একইসঙ্গে শাহকে আর্জির সুরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘আপনি দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, দেশের আগুন জ্বালানো আপনার কাজ নয়, আগুন নেভানো কাজ। হাতজোড় করে অনুরোধ করছি, শান্তি বজায় রাখুন’’।

আজ বুধবার হাওড়া ময়দান থেকে মহামিছিল শেষে ধর্মতলার ডোরিনা ক্রসিংয়ে অমিত শাহকে নিশানা করে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘আপনি দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, দেশে আগুন জ্বালানো আপনার কাজ নয়, আগুন নেভানো কাজ। হাতজোড় করে অনুরোধ করছি’’। এরপরই মমতা বলেন, ‘‘দিল্লি, আসাম, উত্তরপ্রদেশ যখন জ্বলছে, আপনি কেন বলছেন হোগাই হোগা, ক্যয়া হোগা? আধার কার্ডে চলবে না? তাহলে কেন আধার কার্ড বানালেন? দেশের নাগরিক হিসেবে জানতে চাই। একটা দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যখন বলেন, আধার দিয়ে হবে না। ৬ হাজার কোটি টাকা কেন খরচ করলেন আধারের জন্য? কেন ফোনে আধার যোগ করলেন। আধার-ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের কথা কেন বলছেন? প্যান কার্ডেও হবে না বলছে। ভোটার কার্ড থাকলেও হবে না! ভোটাররা ভোট দিয়েছেন বলে আমার আপনার সরকার আছে। আর আপনি বলছেন ভোটার কার্ড নহি চলেগা, বিজেপি কা মাদুলি চলেগা? কেন আমরা আধার কার্ড, প্যান কার্ড বানালাম তাহলে?’’ একইসঙ্গে মমতা বলেন, ‘‘দয়া করে বলছি, আপনার দলকে কন্ট্রোল করুন। শান্তি বজায় রাখুন’’।

অন্যদিকে, ডোরিনা ক্রসিংয়ে এদিন মমতা বলেন, ‘‘আমরা কেউ হিংসা চাই না বলেই পথে নেমেছি। ১ হাজার বুলেটের যা দাম, ১০টা মানুষ যদি শান্তির কথা বলে, তার দাম বেশি। গণতান্ত্রিক আন্দোলন বুলেট দিয়ে হয় না। আগুন জ্বালিয়ে হয় না। দাঙ্গা করে হয় না। রাস্তা অবরোধ করব না। মানুষের অসুবিধা করব না। দু-একটা ঘটনা ঘটেছে, কোথায় শান্ত করবে তা না, সব ট্রেন বন্ধ করে দিয়েছে। যাত্রীদের দোষ কী? গান গাও, ছবি আঁকো, এভাবে প্রতিবাদ করো’’।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment