জেলা 

আহমদ গোলাম মোর্ত্তাজার স্বপ্ন সফল, উচ্চ-মাধ্যমিকের মেধা তালিকায় মামুন ন্যাশনাল স্কুলের ছাত্র

শেয়ার করুন
  • 129
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সেখ ইবাদুল ইসলামঃ বাংলার সংখ্যালঘু সমাজে গোলাম আহমদ মোর্ত্তাজা শুধু একটা নাম নয়,একটা প্রতিষ্ঠান। স্বাধীনোত্তর বাংলায় ইতিহাস চর্চাকে জনপ্রিয় করে তুলেছেন তিনি। ইতিহাস চর্চার মধ্য দিয়ে বাংলার সম্প্রীতির বন্ধন দৃঢ় করার লক্ষে তিনি বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে ছুটে যাচ্ছেন। কিন্ত কয়েক বছর এক আলাপ-চারিতায় গোলাম আহমদ মোর্ত্তাজা বলেছিলেন শুধু ইতিহাসের কথা প্রচার করে হবে না তা নিয়ে গবেষণা বাড়াতে হবে। আর এজন্য সংখ্যালঘু সমাজের ছেলেমেয়েদের শিক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে। প্রকৃত ও উন্নত শিক্ষার মাধ্যমে মুসলিম ছেলেমেয়েদের মেধার বিকাশ ঘটাতে হবে। কয়েক দশক আগেই তিনি স্থাপন করেছিলেন ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়,সেটা সময়ের  দাবির চেয়ে অনেক আগে। তাই সেই উদ্যোগ সফল হয়নি। তাতে দমে যাননি বাংলার সংখ্যালঘু সমাজের ইতিহাস চর্চার পথিকৃৎ। ২০০৬ সালে আবার নতুন উদ্যোমে বাংলার মুসলিম ছেলেদের মেধা বিকাশের জন্য গড়ে তুললেন মামুন ন্যাশনাল স্কুল। দেখতে দেখতে ১২ বছর অতিক্রান্ত হয়েছে। ইতিমধ্যেই এই স্কুলের ছাত্র বিঞ্জানী হিসেবে ভাবা অটোমিক রিসার্চ সেন্টারে কর্মরত।

১২ বছর পর রাজ্যের ইতিহাস চর্চার অগ্রদুতের স্বপ্ন সার্থক হল। মামুন ন্যাশনাল স্কুলের ছাত্র সরিফুল ইসলাম উচ্চ-মাধ্যমিকের মেধা তালিকায় পঞ্চম স্থান দখল করেছে। সরিফুলের এই সাফল্যে উজ্জীবিত হবে রাজ্যের তিন কোটি বাঙালি মুসলিম সমাজ।এটা মামুন ন্যাশনাল স্কুলের একার সাফল্য নয়,পিছিয়ে পড়া বাঙালি মুসলিম সমাজের সাফল্য। এই বিদ্যালয়ে অন্যতম পরিচালক কাজী মুহাম্মদ ইয়াসিন বাংলার জনরবকে বলেন,আমাদের আরও অনেক দূর এগিয়ে যেতে হবে। শিক্ষার মাধ্যমেই জয় করে নিতে হবে আমাদের সব অধিকার। তিনি আরও বলেন, আমাদের স্কুলের চেয়ারম্যান শিল্পপতি মোস্তাক হোসেনের সাহায্য ছাড়া আমরা এগিয়ে যেতে পারতাম না। তাই আজকের এই সাফল্যের নেপথ্যে মোস্তাক হোসেনের কথা বিশেষভাবে স্মরণ করতে হবে।

বাংলার সংখ্যালঘু সমাজকে এগিয়ে যেতে হলে শিক্ষাকে ভালভাবে আয়ত্ত করতে হবে এই আপ্তবাক্যে যিনি বিশ্বাস করেন সেই আহমদ গোলাম মোর্ত্তাজা চোখের সামনে দেখলেন নিজের প্রতিষ্ঠিত স্কুলের ছাত্র সব প্রতিবন্ধকতাকে জয়কে বাংলার মেধা তালিকায় স্থান পেল। আজ সত্যিকার অর্থে গোলাম আহমদ মোর্ত্তাজার স্বপ্ন সফল হল। ইমানী বিশ্বাস নিয়ে এগিয়ে যেতে পারলে সাফল্য আসবেই। এটা আবার প্রমান করলেন,গোলাম আহমদ মোর্ত্তাজা,শিল্পপতি মোস্তাক হোসেন এবং সরিফুল ইসলাম।


শেয়ার করুন
  • 129
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment