কলকাতা 

বিজেপি-র পাতা ফাঁদেই পা দিলেন মুসলিম নেতারা, রাজ্যে বিভাজনের রাজনীতিতে এক ধাপে অনেকটাই এগিয়ে গেল বিজেপি

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : গতকাল আন্দোলনের নামে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে যে তান্ডব চালিয়েছে সংখ্যালঘুরা । তাতে হয়তো কিছু সংখ্যালঘু নেতা নিজেদেরকে জাহির করার সুযোগ পেয়েছেন ঠিকই কিন্ত এর পুরোপুরি ফায়দা পাবে বিজেপি । এতদিন ধরে বিজেপি ভারত তো বটেই বাংলাতেও চাইছিল বিভাজনের রাজনীতিকে দৃঢ় করতে । গতকালের ঘটনার পর সেই কাজে অনেকটাই সফল হয়েছে বিজেপি । আর এটা হল শুধু মাত্র মুসলিম নেতাদের অপরিণামদর্শী রাজনীতির জন্য ।

নিয়ন্ত্রণহীনভাবে আন্দোলনের ডাক দেওয়ার ফলে আন্দোলনকারীদের সংযত করার কেউ ছিল না । ফলে তারা যা খুশি তাই করেছে । অবশ্য অনেকেই বলবেন কেন অসমে তো আন্দোলন হচ্ছে ? হচ্ছে , সেই আন্দোলন করছে সংখ্যাগুরু সম্প্রদায়ের মানুষ । তাই তাদের স্বার্থকে অবশ্যই বিজেপি দেখবে এটা বলার কিছু নেই । তারা আন্দোলন করতে গিয়ে অসমের মুখ্যমন্ত্রীকে বিমানবন্দরে দুঘন্টা আটকে রেখেছিল । মুসলিমরা কী এটা করতে পারবে ? না করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে পিছু পা হবে না প্রশা্সন ।

সুতরাং মুসলিমদের অনেক বেশি সংযত হতে হবে । ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে । মনে রাখতে হবে বিজেপি এই রাজ্যে বিভাজনের রাজনীতি করতে চাইছে । মুসলিমরা যতই মারমুখী ও উত্তেজক আন্দোলন করবে ততই সুবিধা হবে বিজেপির । বিজেপি এটাই চাইছে । কারণ তারা দেখেছে বাবরি মসজিদ নিয়ে নীরব মুসলিমরা । আবার ক্যাব নিয়েও বাংলা ছাড়া অন্য কোথাও সেই অর্থে মুসরিমরা আন্দোলন করছে না । সুতরাং বিজেপি-র রাজনৈতিক উদ্দেশ্য পূরণ হয়নি । তাই তারা নানাভাবে ফাঁদ পাতছিল , সে কথা বহুবার বাংলার জনরব বলেছে , তা সত্ত্বে বিজেপির পাতা ফাঁদেই পা দিল মুসলিম নেতারা। ফলে সদ্য সমাপ্ত উপনির্বাচনে বিজেপি রাজ্যে অনেকটা ব্যাকফুটে চলে যাওয়ার পরেও গতকালের ঘটনায় নতুন করে সংখ্যাগুরু মানুষের সমর্থন বিজেপির দিকে চলে যাবে বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment