দেশ 

রাজ্যসভাতেও ১২৫-১০৫ ব্যবধানে পাশ হয়ে গেল ক্যাব , নয়া ভারতের সূচনা হল , হিন্দুত্বের পথে এগিয়ে গেল একধাপ মোদী সরকার !

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আবার শেষ হাসি হাসলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ । সমগ্র দেশজুড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি চলার পরও লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাশ হয়ে গেল নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি)। ভোটাভুটিতে ১২৫টি ভোট পড়েছে বিলের পক্ষে। বিপক্ষে ভোট ১০৫টি। এ বার রাষ্ট্রপতি সই করলেই এই বিল আইনে পরিণত হবে।

মূল এই ভোটাভুটির আগে বিল সিলেক্ট কমিটিতে পাঠানো হবে কি না, তা নিয়ে ভোটাভুটি হয়। মোট ১৪টি সংশোধনীর জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন বিভিন্ন দলের সাংসদরা। কিন্তু ভোটাভুটিতে সবকটিই খারিজ হয়ে গিয়েছে।নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে রাজ্যসভায় জোর বিতর্ক হয়। সোমবার লোকসভায় পাশ হওয়ার পর আজ বুধবারই রাজ্যসভায় পেশ হয় এই বিল। তা নিয়ে তুমুল বিতর্ক হয় শাসক ও বিরোধী পক্ষের সাংসদের মধ্যে।

রাত ৮টা ৪৫ মিনিট নাগাদ ভোটাভুটিতে বিল পাশ হয়ে যায়। পক্ষে ভোট পড়েছে ১২৫টি ও বিপক্ষে ভোট পড়েছে ১০৫টি। স্বাভাবিকভাবেই ৩৭০-এর পর আরও একটি সাফল্য অমিত শাহের।

এই বিল অনুযায়ী, বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের হিন্দু, বৌদ্ধ, ক্রিশ্চান, জৈন সহ সংখ্যালঘুরা প্রয়োজনে ভারতে নাগরিকত্বের দাবি জানাতে পারবেন। গত সোমবারই লোকসভায় পাশ হয়েছে এই বিল।

লোকসভাতেই বিরোধীদের দাবির বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করে অমিত শাহ জানিয়ে ছিলেন, ভারতীয় মুসলিমদের উপর কোনও প্রভাব পড়বে না। অমিত শাহ এদিন বলেন , ভারতীয় মুসলিমরা সম্মানের সঙ্গে বাস করবে । তাদের নিরাপত্তা কোনোভাবেই বিঘ্নিত হবে বলে রাজ্যসভায় জানান অমিত শাহ ।

এদিন, পরিসংখ্যান দিয়ে অমিত শাহ উল্লেখ করেছেন যে, মোদী সরকারের আমলে ৫৬৬ জন মুসলিম শরণার্থীকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment