আন্তর্জাতিক 

রোহিঙ্গা মুসলমানদের গণহত্যার দায়ে আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের কাঠগড়ায় মায়ানমারের রাষ্ট্রপ্রধান আউং সান সু কি , তিনদিন ধরে চলবে শুনানী

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর গণহত্যা দায়ের আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতে মামলা করেছিল পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া । শান্তি জন্য নোবেল পেয়েছিলেন আউং সান সু কি । মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক আদালতের সমন পেয়ে হাজিরা তিনি সেখানে পৌছান ।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের হত্যাকাণ্ডকে রাষ্ট্রপুঞ্জই তদন্তের পর ‘গণহত্যা’ তকমা দিয়েছে। আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতে মামলার তিন দিনের শুনানিতে সু কি’র বক্তব্য শোনা হবে।২০১৭ সালে মায়ানমারে মুসলিম রোহিঙ্গা শরণার্থীদের উপর নির্বিচারে গুলিবর্ষণ করেছিল সেনাবাহিনী। তার দু’বছর আগেই বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে নির্বাচনে জয়লাভ করে সু কি’র দল।

ফলে, ওই ঘটনা নিয়ে দেশে, বিদেশে কড়া সমালোচনার মুখে পড়েন সু কি। তাঁর বিরুদ্ধে দ্য হেগে আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতে মামলা করেছে পশ্চিম আফ্রিকার একটি দেশ গাম্বিয়া।এক সময় নেলসন ম্যান্ডেলা ও মহাত্মা গাঁধীর সঙ্গে যাঁর নাম উচ্চারিত হত সেই সু কি’র বদনাম বিশ্বে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে রোহিঙ্গা গণহত্যাকাণ্ডের সূত্রেই। সেনাবাহিনীর যে অফিসাররা এক সময় তাঁকে গৃহবন্দি করে রেখেছিলেন, রোহিঙ্গা গণহত্যাকাণ্ডে তাঁদেরই পক্ষ নেওয়ায় সু কি’র সমালোচনায় সরব হন তাঁর এক সময়ের কাছের মানুষজনেরও একাংশ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment