জেলা 

সোস্যাল মিডিয়ায় মুখ্যমন্ত্রীকে কটূক্তির জেরে গ্রেফতার মিম নেতা তথা সিনিয়র মাদ্রাসার শিক্ষক মতিউর রহমান

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : সোস্যাল মিডিয়ায় মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে কটূক্তি করার অভিযোগে গ্রেফতার হলেন মিম নেতা মতিউর রহমান । মতিউর রহমান পেশায় মালদহের চাঁচলের এক সরকারি সিনিয়র মাদ্রাসার শিক্ষক । তিনি মালদহ জেলা জুড়ে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল অল ইন্ডিয়া মজলিশে ইত্তেহাদুল মুসলিমিন বা এআইএমআইএম-র প্রথম সারির নেতা ।

বৃহস্পতিবার ভোররাতে ওই নেতার গ্রেফতারির পর (এআইএমআইএম)-র জাতীয় মুখপত্র এবং পশ্চিমবঙ্গের পর্যবেক্ষক ওয়াসিম ওয়াকার তৃণমূল সরকারের চক্রান্ত বলে মন্তব্য করেছেন। গ্রেফতারির বিরুদ্ধে রাজ্যের সর্বত্র প্রতিবাদ সংগঠিত করা হবে বলে জানান ওয়াসিম।

পুলিশের দাবি, বুধবার সকালে ললিয়াবাড়ি সিনিয়র মাদ্রাসার শিক্ষক ফেসবুকে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে অশালীন ভাষায় একটি পোস্ট করেন। সে বিষয়ে অভিযোগ পাওয়ার পরেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০৫, ৫০৯ এবং তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৭ নম্বর ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাঁকে আদালতে পেশ করা হবে।

চাঁচলের এআইএমআইএম কর্মী সোহেল আনোয়ার এ দিন ফোনে বলেন, ‘‘রাত আড়াইটের সময় পুলিশ মতিউরকে বাড়ি থেকে তুলে আনে থানায়।” তাঁর অভিযোগ, এ দিন সকাল পর্যন্ত পুলিশ তাঁদের পরিষ্কার করে বলেনি ঠিক কী কারণে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে ফেসবুকে করা কটূক্তি প্রসঙ্গে তাঁর দাবি, ‘‘রঘুনাথগঞ্জে বুধবার পুলিশ এক এআইএমআইএম কর্মীকে ফোনে হুমকি দেয় এবং অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। সেই বিষয়টিই লিখতে চেয়েছিলেন মতিউর।”

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment