জেলা 

‘‘দীর্ঘদিন ছুটি না মেলায় মানসিক অবসাদে ভুগছিল মাসুদুল রহমান , তাই আত্মঘাতী হয়েছেন দাবি মায়ের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ছত্তীসগড়ে ইন্দো-তিব্বত বর্ডার পুলিশ বাহিনীর (আইটিবিপি) জওয়ানের গুলি চালানোর ঘটনায় চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এল। দীর্ঘদিন ছুটি না মেলায় মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন নিহত বাঙালি জওয়ান মাসুদুল রহমান। মানসিক অবসাদের জেরেই ওই জওয়ান গুলি চালান বলে চাঞ্চল্যকর দাবি করেছে তাঁর পরিবার। ছত্তীসগড়ের কাদেনার ক্যাম্পে বুধবার নিজের রিভলভার থেকে গুলি চালিয়ে ৫ সহকর্মীর প্রাণ ঝাঁঝরা করেন নদিয়ার নাকাশিপাড়ার বিলকুমারী গ্রামের বাসিন্দা মাসুদুল রহমান। পরে নিজে আত্মঘাতী হন তিনি। এ ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

পরিবারের তরফে দাবি করা হয়েছে, ‘‘দীর্ঘদিন ছুটি না মেলায় মানসিক অবসাদে ভুগছিল মাসুদুল। প্রায় ১ বছর ধরে কোনও ছুটি পায়নি সে। তাই মানসিক অবসাদে ভুগছিল’’। পরিবারের তরফে আরও অভিযোগ করা হয়েছে, এ নিয়ে সহকর্মীদের সঙ্গে বচসাও বাধে মাসুদুলের। মৃত জওয়ানের মা হানিফা বেগম বলেন, ‘‘১০দিন আগে ফোন করেছিল। ২ মাস পরে ছুটি নিয়ে বাড়ি যাব বলেছিল। ও বলত, মা ছুটি দেয়না এখানে। একেকজন ৫-৬ বছর ছুটি পায় না’’। পরিবার সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, মাসুদুলের বিয়ের জন্য পাত্রী দেখা চলছিল। বিয়ের জন্য তাঁকে বাড়িতে আসার কথা বলা হয়। কিন্তু আবেদন করেও ছুটি পাননি মাসুদুল। তাহলে কি ছুটি না মেলায় অবসাদ থেকেই এই পরিণতি?

 

অন্যদিকে, সহকর্মীদের কেন গুলি করে মারলেন ওই জওয়ান, সে ব্যাপারে এখনও ধন্দে মাসুদুলের পরিবার। এ ঘটনায় শোকে বিহ্বল গোটা গ্রাম। জানা যাচ্ছে, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় পাশ করার পরই চাকরিতে যোগ দেন মাসুদুল। ২০০৮ সালে আইটিবিপি-তে যোগ দেন ওই জওয়ান।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment