কলকাতা 

লক্ষ্য ২০১৯ নবীন-প্রবীনের সংমিশ্রণের তৈরি হচ্ছে তৃণমূলের নয়া নেতৃত্ব

শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধিঃ ঈদের পর ২১ জুন তৃণমূল কংগ্রেসের কোর কমিটির মিটিং হতে চলেছে। থাকবেন দল নেত্রী স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পঞ্চায়েত ভোটে অভাবনীয় সাফল্য নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি আগামী লোকসভা নির্বাচনে দলের রণ কৌশল ঠিক করে দেবেন স্বয়ং দল নেত্রী। বিশেষ সূত্রে জানা গেছে,আগামী লোকসভা নির্বাচনের প্রচার থেকে শুরু সব ক্ষেত্রে এক একজন নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া হবে। সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার পাওয়ার সম্ভাবনা আছে যুব তৃণমূলের কর্মীদের। নবীন-প্রবীন নেতৃত্বের সংমিশ্রণে এক নয়া নেতৃত্ব গড়ে তুলতে চান স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে জানা গেছে। আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে ২১জুন যে কোর কমিটি মিটিং হতে যাচ্ছে তাতে মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সম্পর্কে দলনেত্রী সিদ্ধান্ত যে জানাতে চলেছেন তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। মনে করা হচ্ছে,মেয়র পদ থেকে এখনই সরানো না হলেও দক্ষিণ ২৪ পরগণার সভাপতির পদ থেকে সরানো তাঁকে হবে। শোনা যাচ্ছে, এই পদে বসতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ট বলে পরিচিত সাংসদ শুভাশিষ চক্রবর্তী।

আগামী লোকসভা নির্বাচনের জন্য নতুন নেতৃত্ব তুলে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। এই নতুন দায়িত্বে প্রথম সারিতে যেসব নেতা থাকবেন তাঁদের মধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়,অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়,শুভেন্দু অধিকারী,অরূপ বিশ্বাস,ফিরহাদ হাকিম, পার্থ চট্টোপাধ্যায়রা। এদের বাইরে থাকবেন জেলা সভাপতিরা।দলীয় শৃঙ্খলায় শেষ কথা বলে বিবেচিত হবে। কোর কমিটির বৈঠকে আরও সিদ্ধান্ত হতে পারে যারা বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে যারা ষড়যন্ত্র করেছে তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হতে পারে। পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রামে খারাপ ফল নিয়েও আলোচনা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে শোনা যাচ্ছে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের শ্বশুড় দুলাল দাসকে নাকি মন্ত্রীসভায় আনা হচ্ছে।

তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন কোর কমিটির এই বৈঠকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী লোকসভা নির্বাচনের রণনীতি তৈরি করবেন। তরুন নেতৃত্বকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব প্রদান করার বার্তা দেওয়া হবে। শুভেন্দু অধিকারী,অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়,অরূপ বিশ্বাসদেরকে দলে আরও বেশি প্রাধান্য দেওয়া হবে বলে জানা গেছে।


শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment