কলকাতা 

পরিচালন সমিতিকে গুরুত্ব দিয়েই শিক্ষক নিয়োগের জন্য মাদ্রাসা গুলিতে চিঠি পাঠাচ্ছে সার্ভিস কমিশন

শেয়ার করুন
  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মাদ্রাসা গুলিতে শিক্ষক নিয়োগ করতে পরিচালন সমিতিকেই গুরুত্ব দিচ্ছে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন। রাজ্যের প্রত্যেকটি মাদ্রাসায় কমিশনের তরফে চিঠি পাঠানো হচ্ছে। ২৫ মে  মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের তরফে ইস্যু করা ওই চিঠিতে স্পষ্ট উল্লেখ করা রয়েছে যে, যে সমস্ত মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ করতে ইচ্ছুক তাদের আবেদনে অবশ্যই মাদ্রাসার প্রশাসক অথবা পরিচালন সমিতির সম্পাদকের স্বাক্ষর থাকতে হবে। কমিশনের এই নির্দেশিকা থেকেই স্পষ্ট যে মাদ্রাসা গুলিতে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে পরিচালন সমিতিই গুরুত্ব পাবে।

কমিশনের তরফে এই চিঠিই পাঠানো হচ্ছে মাদ্রাসায়

এই প্রসঙ্গে মাদ্রাসা পরিচালন সমিতির পক্ষের আইনজীবী আবু সোহেল বলেন,  কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগে আগ্রহী মাদ্রাসাগুলি প্রধান শিক্ষক কিংবা টিচার ইন চার্জের স্বাক্ষর সম্বলিত আবেদনপত্র কমিশনের অফিসে জমা দিতে পারবে বলে বিগত কয়েকদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায়  প্রচার চালানো হচ্ছিল। কমিশনের এই চিঠি পাঠানোর পর স্পষ্ট যে, মাদ্রাসাগুলিতে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রধান শিক্ষক বা টিচার ইনচার্জ নন, শেষ কথা বলবে পরিচালন সমিতিই। সেই সঙ্গে তাঁর কটাক্ষ মানুষকে বিভ্রান্ত করতেই এক শ্রেণীর অসাধু ব্যক্তি এই ধরণের মিথ্যে প্রচার করছিল।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন সংক্রান্ত মামলা চলার পর গত ২২ মে বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত। বিচারপতি অরুণ কুমার মিশ্র ও উদয় উমেশ ললিতের ডিভিশন বেঞ্চের পাঁচ পাতার রায়ে বলা হয়েছে, যে সমস্ত মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ করতে আগ্রহী, সেই মাদ্রাসাগুলিতে শিক্ষক নিয়োগের জন্য সুপারিশ করতে পারবে কমিশন। শীর্ষ আদালতের এই নির্দেশের পর একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন।  কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিতে আগ্রহী মাদ্রাসাগুলিতে ৮ জুনের মধ্যে সার্ভিস কমিশনে আবেদন করতে বলা হয়েছে।


শেয়ার করুন
  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment