স্বাস্থ্য 

নিপা ভাইরাসের আতঙ্ক দেশজুড়ে, কী এই ভাইরাস ?‌

শেয়ার করুন
  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ কলকাতা থেকে প্রায় ৩ হাজার কিমি দূরত্বে কেরালা। যেখানে নিপা ভাইরাসের সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের। দূরত্ব যত হোক পুরনো আতঙ্ক ফের কড়া নাড়ল শহরবাসীর মনে।সংক্রামিত এই ভাইরাসের যে এখনও কোনও প্রতিষেধক নেই এবং নিমেষের মধ্যে একজনের থেকে অন্যজনের মধ্যে সংক্রামিত হয় এই ভাইরাস । কিন্তু কি এই ভাইরাস, কোথায় এর উৎস স্থল? জানা যায়, ১৯৯৮ সালে মালয়েশিয়ার কামপুং সুনগাই নিপাতে এই ভাইরাসটি প্রথম ধরা পড়ে। তাই এই জায়গার নাম অনুসারে ভাইরাসটির নাম রাখা হয় ‘নিপা’।
২০০১ সালে শিলিগুড়িতে নিপার সংক্রমণে মৃত্যু হয় চিকিৎসক সহ ৪৪ জনের।
২০০৭ সালে নদিয়ায় নিপার বলি হন ৫ জন।
২০১১ সালে নিপা ভাইরাসের প্রকোপে বাংলাদেশে মৃত্যু হয় শতাধিক মানুষের।

নিপা কি?
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ব্যাখ্যা অনুযায়ী, নিপা হল এক ধরনের সংক্রামক ভাইরাস যা পশু থেকে মানুষের দেহে বাসা বাঁধে। পশু ও মানুষ দুই প্রজাতিকেই সমানভাবে আক্রমণ করে। শূকর ও বাদুড় হল নিপার মূল অস্ত্র।

এই ভাইরাসের লক্ষণ
এটি দেহে প্রবেশ করলে প্রথমেই মারাত্মকভাবে শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তারপর অন্য উপসর্গ যেমন মাথা যন্ত্রণা, জ্বর, পেশিতে যন্ত্রণা, গলা ব্যথা, বমি বমি ভাব, মাথা ঘোরা প্রভৃতি। এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর নিউমোনিয়ার হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। এমনকি কোমায় চলে যাওয়ার সম্ভাবনাও থাকে।

এই সংক্রমণ ভাইরাসের আপাতত কোনও প্রতিষেধক নেই। তবে সংক্রমিত রোগীদের ইনটেনসিভ সাপোর্টিভ কেয়ারে রেখে চিকিৎসা করা হয়। এখন এই ভাইরাসের মূল প্রতিষেধক হল ‘সচেতনতা’।

কীভাবে এড়ানো যাবে এই ভাইরাসকে?

মাটিতে পড়ে থাকা ফল খাবেন না। কোনও ফলে যদি আঁচড়ের দাগ বা পশুর কামড় থাকে সেই ফল খাবেন না। কোনও ব্যক্তির মধ্যে নিপা ভাইরাসের উপসর্গ ধরা পড়লে তৎক্ষণাৎ তাকে অন্যের সংস্পর্শ থেকে দূরে রাখুন। কারণ আক্রান্ত ব্যক্তির লালা ও ঘাম থেকে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে ১ সেকেন্ড ও সময় লাগবে না।
এইদিকে হিমাচল প্রদেশের নাহন জেলায় এক সরকারি বিদ্যালয়ে ১৮টি মরা বাদুড় দেখতে পাওয়া যায়। বাদুড় বাহিত নিপার আতঙ্কে চাঞ্চল্য ছড়ায় নাহনে। স্বাস্থ্য বিভাগ ও বনদপ্তর বিভাগ থেকে আধিকারিকরা আসেন এবং স্যাম্পল নিয়ে যায় পরীক্ষার জন্য। কেন্দ্র থেকে রাজ্য সরকার সকলেই সতর্কতা জারি করেছেন নিপার বিরুদ্ধে।


শেয়ার করুন
  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment