কলকাতা 

বাসের রেষারেষিতে পাদানি থেকে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত এক পৌঢ় ; গ্রেফতার দুই বাসের চালক ও কন্ডাটর

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বাসের রেষারেষির সময় পাদানি থেকে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হলেন এক যাত্রী । প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মৃত্যুর হাত থেকে কোনও রকমে রক্ষা পেলেও সমীর পাল নামে প্রৌঢ় ওই যাত্রীর দুটি কান কার্যত ছিঁড়ে গিয়েছে। তাঁর ডান হাতের বুড়ো আঙুলও কেটে গিয়েছে।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে প্রথমে ঢাকুরিয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে তাঁর কানহাতের অস্ত্রোপচার চলছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, আহত যাত্রীর নাম সমীর পাল। তিনি ২১২ রুটের একটি বেসরকারি বাসে চেপে হালতু থেকে বড়বাজার যাচ্ছিলেন। দাঁড়িয়েছিলেন বাসের সামনের গেটের পাদানিতে। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, গড়িয়াহাট মোড়ের কাছে পিছন থেকে একটি ৩সি/ রুটের বাস ওভারটেক করতে যায় তাকে ওই বাসটি। ২১২ রুটের বাসটি আচমকা ব্রেক কষলে ষাটোর্ধ ওই ব্যক্তি পাদানি থেকে ছিটকে পড়ে যান। এই সময় ৩সি/ বাসটি এসে ধাক্কা মারে তাঁকে। সমীরবাবুর মাথায় আঘাত লাগে। তাঁর একটি কান ওই ধাক্কায় ছিঁড়ে যায়। পাশাপাশি ধাক্কা খেয়ে রাস্তায় পড়ে গিয়ে অন্য কানটি থেঁতলে অনেকটাই ছিঁড়ে গিয়েছে। ডান হাতের বুড়ো আঙুলেও গুরুতর আঘাত লাগে তাঁর।

কী ভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে, তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। প্রত্যক্ষদর্শীদের পাশাপাশি তাঁরা সমীরবাবুর সঙ্গেও কথা বলবেন। পেশায় দর্জি সমীরবাবুর অবস্থা আপাতত স্থিতিশীল বলেই জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তাঁর কান এবং হাতে অস্ত্রোপচার করা হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই ২১২ এবং ৩সি/ রুটের ওই বাস দুটিকে আটক করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বাস দুটির চালক এবং কন্ডাকটরদের।

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment