দেশ 

আবদুল্লা, মেহবুবা মুফতিদের অবিলম্বে ছেড়ে দিয়ে শান্তি ফেরাতে আলোচনায় বসা উচিত। জম্মু-কাশ্মীর যাতে ফের রাজ্যের মর্যাদা পায়, সেই চেষ্টা করা দরকার : কর্ণ সিং

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল করার সিদ্ধান্ত  নিয়েছে মোদী সরকার । তা নিয়ে প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস বিরোধিতা করার সিদ্ধান্ত নিলেও তা যে দলের ভেতরে অনেকেই বেসুরে গাইছেন । এতদিন কংগ্রেসের কয়েকজন নেতা এ বিষয়ে মন্তব্য করেছিলেন । তাদেরকে দল থেকে সর্তকও করা হয় ।

কিন্ত গতকাল কংগ্রেস নেতা ও কাশ্মীরের মহারাজা হরি সিংহের পুত্র কর্ণ সিংহের এ বিষয়ে মন্তব্যকে ঘিরে অস্বস্তিতে পড়েছে দল। দু’দিন আগে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটি নরেন্দ্র মোদী সরকারের পদক্ষেপের বিরোধিতা করে যে অবস্থান নিয়েছিল, আজ তার উল্টো পথে হেঁটেছেন তিনি। তাঁর ছেলে বিক্রমাদিত্যও কেন্দ্রের পদক্ষেপকে ‘নতুন যুগের শুরু’ হিসেবে তুলে ধরেছেন।

কর্ণ বলেন, ‘‘আচমকা সিদ্ধান্ত নিলেও জম্মু-কাশ্মীর-সহ গোটা দেশের সমর্থন পেয়েছে সরকার। ব্যক্তিগত ভাবে অন্ধ বিরোধিতার পক্ষে নই। কারণ, এর মধ্যে অনেক ইতিবাচক উপাদান রয়েছে। লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার সিদ্ধান্তকে স্বাগত। ‘সদর-ই-রিয়াসত’ থাকার সময় এই প্রস্তাব করেছিলাম। ৩৫এ হটানোও স্বাগত। আসন পুনর্বিন্যাস করে জম্মু-কাশ্মীরের রাজনৈতিক ক্ষমতা কেন্দ্রও সুনিশ্চিত করা উচিত।’’

কর্ণের বক্তব্য যেমন কংগ্রেসকে চাপে ফেলেছে, তেমনি উল্লসিত বিজেপি। কর্ণের বিবৃতি দিনভর বিজেপি প্রচার করেছে। যদিও কর্ণের মতে, কাশ্মীরের দুই প্রধান আঞ্চলিক দলকে উপেক্ষা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক হয়নি। ওমর আবদুল্লা, মেহবুবা মুফতিদের অবিলম্বে ছেড়ে দিয়ে শান্তি ফেরাতে আলোচনায় বসা উচিত। জম্মু-কাশ্মীর যাতে ফের রাজ্যের মর্যাদা পায়, সেই চেষ্টা করা দরকার।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment