দেশ 

কাশ্মীরি মেয়ে খুঁজতে গুগল সার্চে সবচেয়ে বেশি ভিড় কেরলের ; অন্যান্য রাজ্যগুলিও পিছিয়ে নেই !

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কাশ্মীরি সুন্দরীকে বিয়ে করতে চেয়ে গুগলে সার্চ করছে ভারতে অন্যান্য রাজ্যের পুরুষরা । আসলে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর কাশ্মীরি মেয়েদের আর বিয়ে করতে বাধা নেই । তাই গুগল সার্চে গিয়ে তা দেখে নেওয়া হচ্ছে কাশ্মীরি মেয়েদেরকে । আর এই জোয়ারে সব থেকে এগিয়ে কেরল। ১০০ শতাংশ সাক্ষর এই রাজ্য গত তিন দিনে দেশের মধ্যে গুগ্ সার্চিংয়ের যত বারম্যারি কাশ্মীরি গার্লসার্চ করেছেন তার মধ্যে প্রথমে স্থানে রয়েছে। কেরলের পরেই দ্বিতীয় স্থানে আছে কর্নাটক। এই দুই রাজ্যের মানুষ পড়ি মরি খুঁজছেন কাশ্মীরি মেয়েদের বিয়ের সুলুকসন্ধান।

তার পরেই রয়েছে দিল্লি, মহারাষ্ট্র এবং তেলেঙ্গনা। তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে পশ্চিমবঙ্গ। সপ্তম অষ্টম স্থানে যথাক্রমে তামিলনাড়ু উত্তরপ্রদেশ। ঝাড়খণ্ড উত্তরাখণ্ড থেকে সব থেকে বেশি গুগ্ সার্চ এসেছে কাশ্মীরি মেয়েদের নিয়ে। সেই তালিকায় ১৬ নম্বর স্থানে আছে পশ্চিমবঙ্গ। তবে সার্বিক ভাবে বাংলার মানুষের সন্ধানের ৮৭ শতাংশ খুঁজছেন কাশ্মীরি মেয়েদের। তবে সার্বিক ভাবে বাংলার মানুষের সোমবার সন্ধ্যার পর থেকেই গুগ্ সার্চে সব কিছু ছাপিয়ে উপরে উঠে এসেছে , খুব স্পষ্ট করে বললে কাশ্মীরি মেয়ে। কিন্তু কাশ্মীরি কন্যাদের বাইরের রাজ্যে বিয়ে করা নিষিদ্ধ ছিল নাকি ?  তথ্য বলছে, কোনও দিনই ছিল না। বিশেষ মর্যাদাপ্রাপ্ত জম্মুকাশ্মীরের মেয়েরা তাঁদের রাজ্যের বাইরে বিয়ে করতেই পারতেন। কিন্তু সে ক্ষেত্রে বিয়ের পরে তাঁরা বাপেরবাড়ির সব সম্পত্তির অধিকার থেকে বঞ্চিত হতেন। জম্মুকাশ্মীর কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হয়ে গেলে এই বঞ্চিত হওয়ার পর্বও বাতিল হবে। নিজের রাজ্যের বাইরে বিয়ে হলেও সে ক্ষেত্রে কাশ্মীরি কন্যারা পিতৃসূত্রে সম্পত্তির উত্তরাধিকারিণী থাকবেন।

ছবি : প্রতীকি


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment